;
×
Fill Out Step-2 and Step-3
Condition Apply: সার্ভিসটি লাইফ টাইম ফ্রি করে নিতে নিচে শেয়ার বাটনে চেপে অন্তত একবার শেয়ার করতে হবে !

Queation Bank OF BANK Exam - All Previous Year Queation Together | বিগত ব্যাংক পরীক্ষার প্রায় ৭০০ টি MCQ একসাথে দেখে নিন:::::::


চাকরির পরীক্ষায় বিগত বছরে আসা সব প্রশ্নোত্তর এখান থেকে ব্যাংক বা অন্য পরীক্ষায় চাকরির পরীক্ষায় ৬০% কমন পেতে পারেন

বাংলা - শব্দার্থ
১/ শুখো - অনাবৃষ্টি
২/ হাজা - অতিবৃষ্টি
৩/ লেফাফা - মোড়ক, পোশাক
৪/ রম্ভা - কলা
৫/ পনস - কাঁঠাল
৬/ কুম্ভিলক - নকলবাজ
৭/ শীকর - বৃষ্টির জল
৮/ নির্নিমেষ - অপলক
৯/ ধুপ - রোদ
১০/ বুধ - জ্ঞানী
১১/ তুহিন - ঠাণ্ডা
১২/ তাঞ্জাম- পালকি
১৩/ তানাজা- ঝগড়া,বিবাদ
১৪/তাবুত-শবাধার,কফিন
১৫/ তাবেঈন- অনুসারীগণ
১৬/ তামদারি- আপ্যায়ন;অভ্যর্থনা
১৭/ তামস-ঘন অন্ধকারাচ্ছন্ন
১৮/ তামান্না- আশা,অভিলাষ
১৯/ দীপিকা- প্রদীপ,জোছনা
২০/ নুলোম-এর শাব্দিক অর্থ হলো- অনুক্রম, যথাক্রম
২২/কুষ্মাণ্ড - কুমড়া
২৩/সালতি - ছোট ডিঙ্গি নৌকা
২৪/প্রদোষ - সন্ধ্যা
২৫/মাতৃষ্বসা - খালা
২৬/মণ্ডূক - কুনোব্যাঙ
২৭/আহব - যুদ্ধ
২৮/সওগাত - উপহার
২৯/অসিতবরণ - কালো রং
৩০/ষষ্টি - লাঠি
৩১/গন্ধবহ - বায়ু
৩২/হোমাগ্নি - আগুন
৩৩/ওদন - অন্ন, খাবার
৩৪/মুঢ়োতা - কুসংস্কার
৩৫/আভাষ - পূর্ব ধারণা
৩৬/আকিঞ্চন - ইচ্ছা
৩৭/অরণি - আগুন/ অগ্নি উৎপাদনের কাঠ
৩৮/কুবের - ধনের দেবতা
৩৯/পর্ণশালা - পাতা দিয়ে ছাওয়া ঘর

  বাংলা -বিপরীত শব্দ, সমার্থক শব্দ, শুদ্ধ বাক্য, এক কথায় প্রকা ও সাহিত্য

১) আপদ এর বিপরীত শব্দ – সম্পদ
২) ভূত এর বিপরীত শব্দ – ভবিষ্যৎ
৩) শান্ত এর বিপরীত শব্দ – অশান্ত
৪) কৃতঘ্ন এর বিপরীত শব্দ – কৃতজ্ঞ
৫) অশুদ্ধ বাক্য – সর্বদা পরিস্কৃত থাকিবে
৬) শুদ্ধ বাক্য – তুমি কি ঢাকা যাবে??
৭) শুদ্ধ বাক্য – রহিমা পাগল হয়ে গেছে
৮) শুদ্ধ বাক্য – বুনো ওল, বাঘা তেতুল
৯) বায়ু শব্দের সমার্থক শব্দ – বাত
১০) চাঁদ এর সমার্থক শব্দ – নিশাপতি
১১) সমুদ্র শব্দের সমার্থক – পাথার
১২) রাজা শব্দের সমার্থক – নরেন্দ্র
১৩) জল শব্দের সমার্থক শব্দ – অম্বু
১৪) কৌমুদির প্রতিশব্দ নয় – নলিনী
১৫) অরুন এর প্রতিশব্দ নয় – বিজলী
১৬) নিকেতন এর প্রতিশব্দ নয় – তোয়
১৭) রামা এর প্রতিশব্দ নয় – সুত
১৮) শিক্ষককে শ্রদ্ধা কর। এখানে শিক্ষককে – সম্প্রদান ৭ মী বিভক্তি
১৯) পৌরসভা কোন সমাস – ৬ষ্ঠী তৎপুরুষ সমাস
২০) অর্ক এর প্রতিশব্দ নয় – অনিল
২১) কোনটি সঠিক – আপাদমস্তক
২২) দশানন কোন সমাস – বহুব্রীহি সমাস
২৩) ভূত এর বিপরীত শব্দ – ভবিষ্যত
২৪) রক্ত করবী – নাটক
২৫) বসুমতী শব্দের সমার্থক – ধরিত্রী
২৬) পরার্থ শব্দের অর্থ – পরোপকার
২৭) যে নারী প্রিয় কথা বলে – প্রিয়ংবদা
২৮) সাত সাগরের মাঝি কাব্য – ফররুখ আহমেদ এর
২৯) বৃষ্টি এর সন্ধি বিচ্ছেদ – বৃষ+তি
৩০) রবীন্দ্রনাথের রচনা নয় – বিষের বাঁশী
৩১) গুরুজনে ভক্তিকর এখানে গুরুজনে – কর্মকারক
৩২) বনফুল যার ছদ্মনাম – বলাইচাঁদ মুখোপাধ্যায়
৩৩) surgeon এর পরিভাষা – শল্য চিকিৎসক
৩৪) হে বঙ্গ ভান্ডারে তব বিবিধ রতন কার কবিতার লাইন – মাইকেল মধুসূদন দত্ত
৩৫) ব্যথার দান – কাজী নজরুল রচিত গল্প
৩৬) সংশপ্তক কার – শহীদুল্লাহ কায়সার
৩৭) পর্যালোচনার সন্ধি বিচ্ছেদ – পরি + আলোচনা
৩৮) অম্বর শব্দের অর্থ – আকাশ
৩৯) নিরানব্বইয়ের ধাক্কা – সঞ্চয়ের প্রবৃত্তি
৪০) শুদ্ধ বানান – পিপীলিকা
৪১) প্রবচন – পুরোনো চাল ভাতে বাড়ে
৪২) দারিদ্রতা শব্দটি অশুদ্ধ –প্রত্যয়জনিত কারনে।


বাংলা সাহিত্য ও সাধারন জ্ঞান

1.     কালোরাত হলো ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ (বৃহস্পতিবার) এবং আমাদের বিজয় দিবস- ১৯৭১ সালের ১৬ ডিসেম্বর(বৃহস্পতিবার)
2. বাংলাদেশ UNESCO এর সদস্যপদ লাভ ১৯৭২সালে এবং IAEA এর সদস্যপদ লাভ ১৯৭২ সালে ।
3. বাংলাদেশ Commonwealth এর সদস্যপদ লাভ ১৯৭২ সালে এবং WHO এর সদস্যপদ লাভ করে ১৯৭২সালে ।
4. বাংলাদেশ NAM এর সদস্যপদ লাভ ১৯৭৩ সালে এবং FAO এর সদস্যপদ লাভ ১৯৭৩ সালে ।
5. বাংলাদেশ ADB এর সদস্যপদ লাভ ১৯৭৩ সালে এবং RED CROSS এর সদস্যপদ লাভ করে ১৯৭৩ সালে ।
6. কবি আল মাহমুদের 'কালের কলস' কব্যটি ১৯৭৩ সালে প্রাকাশিত হয় এবং কবি আল মাহমুদের "সোনালি কাবিন" কাব্যটি ১৯৭৩ সালে প্রাকাশিত হয়।
7. বাংলাদেশে UN এর সদস্যপদ লাভ ১৯৭৪ সালে এবং OIC এর সদস্যপদ লাভ ১৯৭৪ সালে ।
8. বাংলাদেশে IDB এর সদস্যপদ লাভ ১৯৭৪ সালে এবং FIFA এর সদস্যপদ লাভ১৯৭৪ সালে ।
9. ১৯৭৫ সালে প্রথমবারের মতো পুরুষদের ক্রিকেট বিশ্বকাপ প্রতিযোগিতা ইংল্যান্ডে অনুষ্ঠিত হয় এবং ১৯৭৫ সালে শেখ মুজিব কে সহপরিবারে হত্যা করা হয়।
10. বাংলাদেশ INTERPOL এর সদস্যপদ লাভ করে ১৯৭৬ সালে এবং IFC এর সদস্যপদ লাভ করে ১৯৭৬ সালে ।
11.রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের প্রথম ছোট গল্গ "ভিখারিনী " মধ্যে মোট গল্গ রয়েছে ১১৯ টি এবং রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের গল্গগুচ্ছ মধ্যে মোট গল্গ রয়েছে ১১৯ টি।
12. রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের লেখা কাব্যগ্রন্থ শেষ কবিতাটি ১৯৪১ সালের ৩০ জুলাই রচনা করেন এবং রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের "সভ্যতার সংকট " প্রবন্ধটি ১৯৪১ সালে প্রাকাশিত হয়।
13. কাজী নজরুল ইসলাম ও জসীম উদ্ দীনের মৃত্যু ১৯৭৬ সালে এবং
একুশে পদক প্রদান শুরু হয় ১৯৭৬ সালে।
14. ভাষা আন্দোলন হয় ১৯৫২সালে এবং এশিয়াটিক সোসাইটি প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৫২ সালে।
15. ২য় বিশ্বযুদ্ধ শেষ হয় ১৯৪৫ সালে এবং ইউনেস্ক , জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠিত হয় ১৯৪৫ সালে।
16. বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন ১৯৭২ সালে এবং ভারত -বাংলাদেশ মৈত্রী চুক্তি ১৯৭২ সালে।
17.পাবর্ত্ য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি ১৯৯৭ সালে হয় এবং বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের ওয়ানডে স্ট্যাটাস লাভ ১৯৯৭ সালে।
18.২য় বিশ্বযুদ্ধ শেষ হয় ১৯৪৫ সালে এবং ইউনেস্ক প্রতিষ্ঠা লাভ করে ১৯৪৫ সালে।
19. শেরে বাংলা করুন্তৃক লাহোর প্রস্তাব উত্থাপন করে এবং টিভির বাণিজি্যক উৎপাদন ১৯৪০ সালে
20. জাতিসংঘ প্রতিষ্ঠা লাভ করে ১৯৪৫ সালে এবং জাপানে পারমানিক বোমা ফেলা হয় ১৯৪৫ সালে।
21.কাজী নজরুল ইসলাম ২৫মে ১৮৯৯ জন্মগ্রহণ করেন এবং জীবনানন্দ দাশ ১৭ই ফেব্রুয়ারি ১৮৯৯ জন্মগ্রহণ করেন।
22. প্রমথ চৌধুরী ১৯৭৬ সালে মৃত্যুবরণ করেন এবং জসীমউদ্দীন ১৪ই মার্চ ১৯৭৬ মৃত্যুবরণ করেন ।
23. কবি আল মাহমুদের "সোনালী কাবিন" কব্যটি ১৯৭৩ সালে প্রকাশিত হয় এবং কবি আল মাহমুদের "কালের কলস " ১৯৭৩ সালে প্রকাশিত হয়।
24. শামসুর রহমানের "এক ধরনের অহংকার "নামক কব্যটি ১৯৭৫ সালে প্রকাশিত হয় এবং "আমি অনাহারী " নামক কব্যটি ১৯৭৫ সালে প্রকাশিত হয়।
25.রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের "সভ্যতার সংকট " নামক প্রবন্ধটি ১৯৪১ সালে প্রকাশিত হয় এবং রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের
" শেষ লেখা " নামক কব্যটি ১৯৪১ সালে প্রকাশিত হয়।

বাংলা ব্যাকরণ MCQ উপযোগী

১) ভাষার মূল উপাদান – ধ্বনি
২) আভরণ শব্দের অর্থ – অলংকার
৩) মন্ত্রের সাধন কিংবা শরীর পাতন এখানে কিংবা – বিয়োজক অব্যয়
৪) ঢাকের কাঠি বাগধারার অর্থ – তোষামুদে
৫) বাবুর্চি – তুর্কি শব্দ
৬) শুদ্ধ বানান – মূর্ধন্য
৭) চীনা শব্দ – চা, চিনি
৮) ভাষায় সর্বনাম ব্যবহারের উদ্দেশ্য – বিশেষ্যের পুনরাবৃত্তি দূর করা
৯) সন্ধির প্রধান সুবিধা – উচ্চারণে
১০) কর্মভোগ এড়ানো যায় না এখানে কর্ম অর্থ – কৃতকর্ম
১১) তুমি না বলেছিলে আগামীকাল আসবে? এখানে না – প্রশ্নবোধক অর্থে
১২) পাবক শব্দের সমার্থ – অগ্নি
১৩) মৃন্ময়ী যে উপন্যাসের নায়িকা – সমাপ্তি
১৪) তুমি যাও – অনুজ্ঞা
১৫) সঠিক যে টি – পথের দাবী ( উপন্যাস)
১৬) আত্নঘাতি বাঙালী – নীরদচন্দ্র চৌধুরীর গ্রন্থ
১৭) চতুরঙ্গ পত্রিকার সম্পাদক – হুমায়ুন কবির
১৮) রবীন্দ্রনাথের রচনা – চতুরঙ্গ
১৯) আবোল তাবোল কার – সুকুমার রায়
২০) ফোর্ট উইলিয়াম কলেজের বাংলা বিভাগের প্রধান ছিলেন – উইলিয়াম কেরি
২১) প্রত্যয়গতভাবে শুদ্ধ – উৎকর্ষতা
২২) অমিত্রাক্ষর ছন্দের বৈশিষ্ট্য – অন্তমিল থাকেনা
২৩) চাঁদ – তদ্ভব শব্দ
২৪) পুণ্যে মতি হোক এখানে পুণ্যে – বিশেষ্য
২৫) তার বয়স বেড়েছে কিন্তু বুদ্ধি বাড়েনি – যৌগিক বাক্য
২৬) আনারস, চাবি – পর্তুগিজ শব্দ
২৭) শুদ্ধ বানান – নির্নিমেষ
২৮) বাংলা ভাষায় যতি চিহ্নের প্রচলন করেন – ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর
২৯) সংশয় এর বিপরীত শব্দ – প্রত্যয়
৩০) ইহলোকে যা সামান্য নয় – আলোক সামান্য
৩১) শশী ও কুমুদ চরিত্র দুটি – পুতুল নাচের ইতিকথার
৩২) ভাষায় সাহিত্যের গাম্ভীর্য ও আভিজাত্য প্রকাশ পায় – সাধু ভাষায়
৩৩) রাত্রির সমার্থক নয় – বারিদ
৩৪) ব্রজবুলি হলো – মৈথিলি ভাষার একটি উপভাষা
৩৫) অভিধানে আগে বসবে – চাঁটি শব্দি
৩৬) গাহি সাম্যের গান, ধরণীর হাতে দিল যারা আনি ফসলের ফরমান – নজরুলের সাম্যবাদী কবিতার লাইন
৩৭) অভিনিবেশ শব্দের অর্থ – মনোযোগ
৩৮) সঠিক বাক্য – আমার কথাই প্রমাণিত হলো
৩৯) সন্ধ্যায় সূর্য অস্ত যায় – নিত্যবৃত্ত অতীত
৪০) সাধুরীতির বৈশিষ্ট্য – সর্বনাম ও ক্রিয়াপদ এক বিশেষ গঠন পদ্ধতি মেনে চলে।

বাংলাদেশ ব্যাংক এডি ২০১৩, ২০১৪

১) ঢাক ঢাক গুড় গুড় বাগধারার অর্থ – গোপন রাখার প্রয়াস
২) কোনটি পরিচ্ছদ – শিমুল
৩) যৌগিক বিশোষণের উদাঃ – পন্ডিত জনোচিত উক্তি
৪) প্রত্যয়ান্ত শব্দ – পিপাসা
৫) কোন ত্রয়ীবানান শুদ্ধ – মুমূর্ষু, সংঘর্ষ, বিমর্ষ
৬) কোনটি অঙ্গ ভূষণ – মেখলা
৭) Transliteration এর পরিভাষা – প্রতিবর্ণীকরন
৮) শেক্সপীয়রের টেমিং অব দি শ্রু বাংলা অনুবাদ করেন – মুনীর চৌধুরী
৯) পদাবলীর রচয়িতা – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
১০) এক জাতীয় নয় – তনয়
১১) শামসুর রাহমানের গদ্য গন্থ – স্মৃতির শহর
১২) তুলনাজ্ঞাপক শব্দ – প্রমিত
১৩) লোকটা যে পিছনে লেগেই রয়েছে, কী বিপদ!! এখানে কী – বিরক্তি বোঝায়
১৪) বুদ্ধদেব বসু সম্পাদিত পত্রিকা – কবিতা
১৫) সমার্থক নয় – মরৎ
১৬) The window panes steamed up এর বাংলা – জানালার কাচ ঝাপসা হয়ে গেল
১৭) হাসি ও ব্যঙ্গের নজরুল কাব্য – পুবের হাওয়া
১৮) সমাস গঠিত শব্দ – নরপুঙ্গর ( দ্বন্দ্ব সমাস)
১৯) যৌবন এর বিপরীত শব্দ – জরা
২০) ছেমড়া শব্দটি – সংস্কৃত
২১) দহন কাল উপন্যাস এর জন্য বাংলা একাডেমী সাহিত্য পুরস্কার ২০১২ পদক পান – হরিশংকর
জলদাস
২২) জাফর ইকবালের প্রথম প্রকাশিত সায়েন্স ফিকশন – কপোট্রনিক সুখ দুঃখ ( ১৯৭৬)
২৩) চাচা কাহিনীর লেখক – সৈয়দ মুজতবা আলী
২৪) সোনালী কাবিন কাব্যের রচয়িতা – আল মাহমুদ
২৫) তোমাকে পাওয়ার জন্য হে স্বাধীনতা পংক্তিটির রচনা করেন – শামসুর রাহমান
২৬) শুব্দ বানান – মুমূর্ষু
২৭) যে নারী প্রিয় কথা বলে – প্রিয়ংবদা
২৮) দশানন কোন সমাস – বহুব্রীহি
২৯) Executive – এর পরিভাষা – নির্বাহী
৩০) পর্যালোচনা এর সন্ধি বিচ্ছেদ – পরি + আলোচনা
৩১) মেধাবী শব্দের প্রকৃতি প্রত্যয় – মেধা + বিণ
৩২) গোঁফ খেজুরে অর্থ – নিতান্ত অলস
৩৩) অন্ধজনে দেহ আলো এখানে অন্ধজনে কারক বিভক্তি – সম্প্রদানে ৭মী
৩৪) পৃথিবী শব্দের প্রতিশব্দ নয় – বারি
৩৫) কচ্ছপের কামড় বাগধারার অর্থ – নাছোড় বান্দা
৩৬) লাঠা লাঠি – বহুব্রীহি সমাস
৩৭) ভুল প্রতিশব্দ – ইচ্ছা- পরশ্রীকাতরতা
৩৮) ঠাকুরমার ঝুলি কি জাতীয় সংকলন – রুপকথা
৩৯) সৌম্য এর বিপরীত – উগ্র
৪০) জীবন্মৃত এর ব্যাসবাক্য – জীবিত থেকেও যে মৃত

 বাংলাদেশ ব্যাংক এডি ২০১১, ২০১২
১) আপদ এর বিপরীত শব্দ – সম্পদ
২) ভূত এর বিপরীত শব্দ – ভবিষ্যৎ
৩) শান্ত এর বিপরীত শব্দ – অনন্ত
৪) কৃতঘ্ন এর বিপরীত শব্দ – কৃতজ্ঞ
৫) অশুদ্ধ বাক্য – সর্বদা পরিস্কৃত থাকিবে
৬) শুদ্ধ বাক্য – তুমি কি ঢাকা যাবে??
৭) শুদ্ধ বাক্য – রহিমা পাগল হয়ে গেছে
৮) শুদ্ধ বাক্য – বুনো ওল, বাঘা তেতুল
৯) বায়ু শব্দের সমার্থক শব্দ – বাত
১০) চাঁদ এর সমার্থক শব্দ – নিশাপতি
১১) সমুদ্র শব্দের সমার্থক – পাথার
১২) রাজা শব্দের সমার্থক – নরেন্দ্র
১৩) জল শব্দের সমার্থক শব্দ – অম্বু
১৪) কৌমুদির প্রতিশব্দ নয় – নলিনী
১৫) অরুন এর প্রতিশব্দ নয় – বিজলী
১৬) নিকেতন এর প্রতিশব্দ নয় – তোয়
১৭) রামা এর প্রতিশব্দ নয় – সুত
১৮) শিক্ষককে শ্রদ্ধা কর। এখানে শিক্ষককে – সম্প্রদান ৭ মী বিভক্তি
১৯) পৌরসভা কোন সমাস – ৬ষ্ঠী তৎপুরুষ সমাস
২০) অর্ক এর প্রতিশব্দ নয় – অনিল
২১) কোনটি সঠিক – আপাদমস্তক
২২) দশানন কোন সমাস – বহুব্রীহি সমাস
২৩) ভূত এর বিপরীত শব্দ – ভবিষ্যত
২৪) রক্ত করবী – নাটক
২৫) বসুমতী শব্দের সমার্থক – ধরিত্রী
২৬) পরার্থ শব্দের অর্থ – পরোপকার
২৭) যে নারী প্রিয় কথা বলে – প্রিয়ংবদা
২৮) সাত সাগরের মাঝি কাব্য – ফররুখ আহমেদ এর
২৯) বৃষ্টি এর সন্ধি বিচ্ছেদ – বৃষ+তি
৩০) রবীন্দ্রনাথের রচনা নয় – বিষের বাঁশী
৩১) গুরুজনে ভক্তিকর এখানে গুরুজনে – কর্মকারক
৩২) বনফুল যার ছদ্মনাম – বলাইচাঁদ মুখোপাধ্যায়
৩৩) surgeon এর পরিভাষা – শল্য চিকিৎসক
৩৪) হে বঙ্গ ভান্ডারে তব বিবিধ রতন কার কবিতার লাইন – মাইকেল মধুসূদন দত্ত
৩৫) ব্যথার দান – কাজী নজরুল রচিত গল্প
৩৬) সংশপ্তক কার – শহীদুল্লাহ কায়সার
৩৭) পর্যালোচনার সন্ধি বিচ্ছেদ – পরি + আলোচনা
৩৮) অম্বর শব্দের অর্থ – আকাশ
৩৯) নিরানব্বইয়ের ধাক্কা – সঞ্চয়ের প্রবৃত্তি
৪০) শুদ্ধ বানান – পিপীলিকা
৪১) প্রবচন – পুরোনো চাল ভাতে বাড়ে
৪২) দারিদ্রতা শব্দটি অশুদ্ধ – প্রত্যয়জনিত কারনে।

বাংলাদেশ ব্যাংক এডি ২০১০, ২০০৯, ২০০৮

১) কোন বানানটি সঠিক – ভদ্রোচিত

২) উনপাঁজুরে শব্দরে অর্থ – দুর্বল

৩) উত্তম পুরুষের উদাঃ – আমি

৪) দিনের আলো ও সন্ধ্যার আঁধারে মিলন – গোধূলী

৫) যা দীপ্তি পাচ্ছে – দেদীপ্যমান

৬) আকাশ শব্দের সমার্থক নয় – হিমাংশু

৭) দেশী শব্দ – চাল, চুলা

৮) সন্ধি শব্দের বিপরীত শব্দ – বিয়োগ

৯) কোনটির লিঙ্গান্তর হয় না – কবিরাজ

১০) সকল সভ্যগণ এখানে উপস্থিত ছিলেন এর শুব্দ রুপ – সভ্যগণ এখানে উপস্থিত ছিলেন

১১) বাঁধ্ + অন = বাঁধন কোন শব্দ – কৃদন্ত শব্দ

১২) ধাতু কয় প্রকার – ৩ প্রকার

১৩) রচনাটির উৎকর্ষতা অনস্বীকার্য এর শুব্দ রুপ – রচনাটির উৎকর্ষ অনস্বীকার্য

১৪) দশে মিলে করি কাজ এখানে দশে – কর্তৃকারকে ৭মী বিভক্তি

১৫) স্বরসংগতির উদাহরন – দেশী> দিশী

১৬) পাতায় পাতায় পড়ে নিশির শিশির এখানে পাতায় পাতায় – অধিকরণে ৭মী বিভক্তি

১৭) যে বহু বিষয় জানে – বহুজ্ঞ

১৮) যৌগিক স্বরধ্বনি – ঐ

১৯) সূর্য এর প্রতিশব্দ নয় – হিমকর

২০) কবর কবিতাটি কোন কাব্যের – রাখালী

২১) আহসান হাবীব এর কাব্যগ্রন্থ – আশার বসতি, ছায়াহরিণ, সারাদুপুর

২২) যাহা দিলাম তাহা উজাড় করিয়া দিলাম। – রবীন্দ্রনাথের হৈমন্তী গল্পের উক্তি

২৩) হাজার বছর ধরে রচনা করেন – জহির রায়হান

২৪) এখানে তোর দাদির কবর ডালিম গাছের তলে, তিরিশ বছর ভিজায়ে রেখেছে দুই নয়নের জলে।

এর পরের লাইন — এতটুকু তারে ঘরে এনেছিনু সোনার মত মুখ

২৫) তপুকে আবার ফিরে পাবো, একথা ভুলেও ভাবিনি কোন দিন — জহির রায়হানের একুশের গল্পের

উক্তি

২৬) রবীন্দ্রনাথ নোবেল পান – ১৯১৩ সালে

২৭) রবীন্দ্রনাথের রচনা নয় – মৃত্যু ক্ষুধা

২৮) ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের পারিবারিক পদবি – বন্দোপাধ্যায়

২৯) সুকান্ত ভট্টাচার্য মৃত্যুবরন করেন – ২১ বছরে

৩০) রবীন্দ্রনাথের জন্ম – ২৫ বৈশাখ,১২৬৮ বাংলা

৩১) জীবন থেকে নেয়া, স্টপ জেনোসাইড, লেট দেয়ার বি লাইট – জহির রায়হানের রচনা

৩২) মহাশশান মহাকাব্য – কায়কোবাদ রচনা করেন

৩৩) সনেট এর পংক্তি – ১৪ টি

৩৪) বাংলা কাব্যে অমিত্রাক্ষর ছন্দের প্রবর্তক – মাইকেল মধুসূদন দত্ত

৩৫) পদ্মা নদীর মাঝি যার লেখা – মানিক বন্দোপাধ্যায়

৩৬) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কাব্য গ্রন্থ নয় – নৌকাডুবি

৩৭) রাজবন্দীর জবানবন্দী কার – কাজী নজরুল ইসলাম

৩৮) গগনে গরজে মেঘ, ঘন বরষা পরের লাইন – কূলে একা বসে আছি, নাহি ভরসা

৩৯) যা অধ্যয়ন করা হয়েছে – অধীত

৪০) যিনি বক্তৃতা দানে পটু – বাগ্মী

#বাংলাদেশ_ব্যাংক_এডি ২০০৬, ২০০৪

১) কষ্টে অতিক্রম করা যায় যা – দুরাতিক্রম্য

২) The rose is a fragrant flower এর বাংলা – গোলাপ সুগন্ধি ফুল

৩) পত্রের গর্ভাংশ বলে – মূল বিষয়কে

৪) কে জানে দেশে সুদিন আসবে কিনা। বাক্যটি প্রকার করে – অনশ্চিয়তা

৫) প্রদীপ নিভে গেল। বাক্যটি – সাধারণ অতীত কালের

৬) আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির রচয়িতা – আঃ গাফফার চৌধুরী

৭) সংশয় এর বিপরীত – প্রত্যয়

৮) আরোহন এর বিপরীত – অবরোহণ

৯) সূর্য এর প্রতিশব্দ – আদিত্য

১০) জসীমউদদীন রচিত গ্রন্থ – সোজন বাদিয়ার ঘাট

১১) শুদ্ধ বাক্য – আজ কাল বানানের ব্যাপারে সব ছাত্রই অমনোযোগী

১২) শুদ্ধ বানান – আলস্য, ঘূর্ণায়মান

১৩) প্রতিশব্দ নয় – আগুন – কর, আনন্দ- দিপ্তী, বন- সরোজ

১৪) যে সত্য কথা বলে, তাকে সকলে বিশ্বাস করে এর সরল বাক্য – সত্যবাদীকে সকলে বিশ্বাস করে

১৫) সঠিক অর্থ সমূহ – হাতের পাঁচ- শেষ সম্বল, চাঁদের হাট- প্রিয়জন সমাগম, কাক নিদ্রা- অগভীর

নিদ্রা, শিরে সংক্রান্তি – আসন্ন বিপদ, একচোখা – পক্ষপাত দুষ্টু

১৬) দুর্দিনের যাত্রী গ্রন্থের রচয়িতা – কাজী নজরুল ইসলাম

১৭) বিদ্রোহী কবিতাটি কোন কাব্যের – অগ্নিবীণা

১৮) আবার আসিব ফিরে ধান সিঁড়িটির তীরে কোন কবির কথা – জীবনন্দ দাশ

১৯) মধ্যযুগের বাংলা সাহিত্যের শ্রেষ্ঠ কবি – ভারত চন্দ্র

২০) হরতাল – গুজরাটি শব্দ

২১) জাতীয় স্মৃতি সৌধের স্থপতি – সৈয়দ মঈনুল হোসেন

২২) সোজন বাদিয়ার ঘাট এর রচয়িতা – জসীম উদদীন

২৩) শরৎচন্দ্রের রচনা নয় – চোখের বালি

২৪) শুদ্ধ বানান – স্বায়ত্তশাসন

২৫) অপপ্রয়োগের দৃষ্টান্ত – একত্রিত

২৬) শকট শব্দের অর্থ – মাছ

২৭) শেষ লেখা কি জাতীয় রচনা – কাব্য

২৮) যে বিষয়ে কোন বিবাদ নেই – অবিসংবাদী

২৯) কাজলা দিদি কি – যতীন্দ্রমোহন বাগচী রচিত কবিতা

৩০) নীল দর্পন নাটক প্রকাশিত হয় – ঢাকা থেকে

৩১) মেঘনাদবধ কাব্য প্রকাশিত হয় – ১৮৬১ সালে

৩২) পদ্মাবতী কার রচনা – আলাওল

৩৩) ভানুসিংহ যার ছদ্মনাম – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

৩৪) রবীন্দ্রনাথ নোবেল পান – ১৯১৩ সালে

৩৫) বাংলা উপসর্গ – অনা

৩৬) চন্ডীদাস যে যুগের কবি – মধ্যযুগ

৩৭) কলা দেখানো অর্থ – ফাঁকি দেয়া

৩৮) বেগম রোকেয়ার রচনা নয় – পদ্মনী

৩৯) প্রথম বাংলা পত্রিকা – দিকদর্শন

৪০) হাত চালাও মানে – তাড়াতাড়ি করা

৪১) কোন রচনার জন্য নজরুলের জেল হয় – আনন্দময়ীর আগমনে

৪২) বঙ্কিম এর বিপরীত –ঋজু

সোনালী ব্যাংক অফিসার সিনিয়র অফিসার ২০১৪, ২০১৩

১) অপোগন্ড শব্দের অর্থ – অপ্রাপ্তবয়স্ক, অপদার্থ

২) বাবা – তুর্কি শব্দ

৩) বাজারে কাটা অর্থ – বিক্রি হওয়া

৪) বীরবল ছদ্মনাম – প্রমথ চৌধুরী

৫) সওগাত শব্দের অর্থ – উপহার

৬) ব্যাঘাত এর বিশেষণ – ব্যাহত

৭) ফুলদানি শব্দের দানি- র ভাষিক পরিচয়, – শব্দপ্রত্যয়

৮) বাংলা ভাষায় সনেট প্রবর্তন করেন – মধুসূদন দত্ত

৯) বিলাসী গল্পটি – শরৎচন্দ্রের

১০) সিডর – সিংহলি ভাষার শব্দ

১১) দোহারা শব্দের অর্থ – মোটাও নয়, রোগাও নয়

১২) অপপ্রয়োগের দৃষ্টান্ত – নির্ভরশীলতা

১৩) Barren শব্দরে অর্থ – ঊষর

১৪) অশুদ্ধ বানান – মরুদ্যান, আয়ত্ব

১৫) জঙ্গম শব্দের অর্থ – গতিশীল

১৬) পাঞ্জেরী কবিতাটি – ফররুখ আহমেদ এর

১৭) ক্ষুণ্নিবৃত্তি এর সন্ধিবিচ্ছেদ – ক্ষুধ+ নিবৃত্তি

১৮) বায়স শব্দের অর্থ – কাক

১৯) নজরুল ইসলাম সম্পাদিত পত্রিকা – লাঙ্গল

২০) কবর নাকটটি – মুনীর চৌধুরীর

২১) বাংলা উপন্যাসের জনক – বঙ্কিম চন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

২২) সন্ধি ব্যাকরণের আলোচিত হয় – ধ্বনিতত্ত্বে

২৩) রাবণের চিতা বাগধারার অর্থ – চির অশান্তি

২৪) শিখা পত্রিকা কোন সংগঠনের – মুসলিম সাহিত্য সমাজ

২৫) কমলা কান্তের দপ্তর যে শ্রেণীর রচনা – প্রবন্ধ

২৬) বিজ্ঞান শব্দের বি উপসর্গের অর্থ – বিশেষ

২৭) আমার সন্তার যেন থাকে দুধে ভাতে এই প্রার্থনা – ঈশ্বরী পাটনীর

২৮) দশে মিলে করি কাজ বাক্যে দশে – কর্তৃকারকে ৭মী বিভক্তি

২৯) নজরুল কারাবরণ করেন – আনন্দময়ীর আগমনে কবিদার জন্য

৩০) বেগম রোকেয়ার রচনা – মতিচুর, পদ্মরাগ, অবরোধবাসিনী

৩১) স্বাধীনতা হীনতায় কে বাঁচিতে চায় কার কথা – রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায়

৩২) বাংলায় টি.এস এলিয়টের কবিতা প্রথম অনুবাদ করেন – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

৩৩) এ সাবানে কাপড় কাচা চলবে না এখানে সাবানে – করনে ৭মী

৩৪) জানালা শব্দটি – ফারসি শব্দ

৩৫) বাংলা ভাষার প্রথম সাময়িকী – দিক দর্শন

৩৬) ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহর মতে বাংলা ভাষার উৎপত্তি – গৌড়ীয় প্রাকৃত থেকে

৩৭) বসন্তকুমারী নাটকের রচয়িতা – মীর মশাররফ হোসেন

৩৮) বাংলা সাহিত্যে ছন্দের যাদুকর – সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত

৩৯) পড়েছি মোগলের সাথে খানা খেতে হবে এক সাথে। এর অর্থ – বিপদে পড়ে কাজ করা।

সোনালী ব্যাংক অফিসার, সিনিয়র অফিসার ২০১০

১) শুদ্ধ বানান – মুহুর্মুহু

২) যে পুরুষ বাচক শব্দের দুটি স্ত্রী বাচক শব্দ আছে – ভাই

৩) টীকা ভাষ্য বাগধারাটির অর্থ – দীর্ঘ আলোচনা

৪) পাথরে পাঁচ কিল বাগধারার অর্থ – প্রবল সৌভাগ্য

৫) বহুব্রীহি সমাস – দশানন

৬) পানির সমার্থক শব্দ – উদক

৭) কোথাও উন্নত কোথাও অবনত এককথায় – বন্ধুর

৮) যা লাফিয়ে চলে – প্লবক

৯) বিপদে মোরে রক্ষাকর এ নহে মোর প্রার্থনা – সরল বাক্য

১০) তার বয়স বাড়লেও বুদ্ধি বাড়েনি – সরল বাক্য

১১) মঙ্গল কাব্যের কয়টি অংশ থাকে – ৫টি

১২) মধুসূদন দত্ত রচিত পত্রকাব্য – বীরাঙ্গনা

১৩) রবীন্দ্রনাথ সুভাষ চন্দ্রকে উৎসর্গ করেন – তাসের দেশ

১৪) ঢাকা থেকে প্রকাশিত প্রথম গ্রন্থ – নীলদর্পন

১৫) চর্যাপদের পদগুলি টীকার মাধ্যমে ব্যাখা করেন – মুনি দত্ত

১৬) জহির রায়হানের রচনা – আরেক ফাল্গুন

১৭) নজরুল রচিত নাটক – ঝিলিমিলি

১৮) মুনির চৌধুরী রচিত কবর একটি – নাটক

১৯) পঞ্চতন্ত্র রচনা করেন – সৈয়দ মুজতবা আলী

২০) শ্রীকৃষ্ণকীর্তন কাব্য রচনা করেন – বড়ু চন্ডীদাস

২১) সমুদ্র শব্দের সমার্থক – পাথার

২২) ঐহিক এর বিপরীত শব্দ – পারত্রিক

২৩) নাটিকা কোন অর্থে স্ত্রীবাচক শব্দ – ক্ষুদ্রার্থে

২৪) দ্বিগু সমাস – চৌরাস্তা

২৫) যার চক্ষুলজ্জা নাই – চশমখোর

২৬) যা অবশ্যই ঘটবে – অবশ্যম্ভাবী

২৭) শুদ্ধ বানান – স্বায়ত্তশাসন

২৮) শুদ্ধ বানান – অগ্নিবীণা

২৯) ধর্মের ষাঁড় বাগধারার অর্থ – স্বার্থপর

৩০) একচোখা – পক্ষপাত দুষ্টু

৩১) বাংলায় স্বরবর্ণ -১১ টি

৩২) বাংলাদেশের রণসঙ্গীতের রচয়িতা – নজরুল ইসলাম

৩৩) বিষাদসিন্ধু যাঁর রচনা – মীর মশাররফ হোসেন

৩৪) চর্যাপদের কবির সংখ্যা – ২৩ জন

৩৫)সাহিত্যে যুগ সন্ধিক্ষণের কবি – ঈশ্বরচন্দ্র গুপ্ত

৩৬) চর্যাপদ আবিষ্কার করেন – হরপ্রসাদ শাস্ত্রী

৩৭) মধ্যযুগের কাব্যের একটি ধারা – মঙ্গল কাব্য

৩৮) মাত্রাহীন বর্ণ – ১০টি

৩৯) রোহিণী চরিত্রটি – কৃষ্ণকান্তের উইল উপন্যাসের

৪০) আমার সোনার বাংলা কবিতার প্রথম – ১০ লাইন জাতীয় সঙ্গীত

৪১) ষাট বছর পূর্ণ হওয়ার উৎসব – হীরক জয়ন্তী

৪২) ভুল সন্ধি বিচ্ছেদ – দু+ লোক= দ্যুলোক

৪৩) বাবা শব্দটি – তুর্কি

৪৪) হাসি দিয়ে ঘরটিকে ভরিয়ে রাখত সে। এখানে – দিয়ে হলো – অনুসর্গ

৪৫) বগুড়ার চিনিপাতা দই সুস্বাদু। বাক্যটির চিনিপাতা – করণ কারক

৪৬) সংবাদপত্র – মধ্যপদলোপী কর্মধারয় সমাস

৪৭) ভানুমতির খেল মানে – ভেলকিবাজি

৪৮) সকল ছাত্ররাই যথাসময়ে উপস্থিত হয়েছে – বচনের ভুল

৪৯) বাংলা গদ্যরীতির জনক – বিদ্যাসাগর

৫০) ছায়া হরিন যাঁর রচনা – আহসান হাবীব

৫১) সুসময়ের বন্ধু – বসন্তের কোকিল

৫২) সমুদ্র শব্দের সমার্থক নয় – অদ্রি

৫৩) অশুদ্ধ বানান – ভূল

৫৪) খদ্দর -গুজরাটি শব্দ

৫৫) সঠিক ণ এর ব্যবহার হয়েছে – তৃষ্ণা শব্দে

৫৬) জাতি+ অভিমান – জাত্যভিমান

৫৭) কোনটি প্রবন্ধ – কালান্তর

৫৮) ক্ষুদ্র অর্থে উপ ক্যবহৃত হয়েছে – উপসাগর শব্দে

৫৯) কন্যার সমার্থক শব্দ নয় – সহোদরা

৬০) বাহুল্যদোষে দুষ্টু শব্দটি – অধীনস্থ

৬১) অসমাপ্ত আত্নজীবনীর লেখক – শেখ মুজিবুর রহমান

# সরকারি_ব্যাংকের_বিগত বছরের ৫০০টি প্রশ্ন উত্তরসহ

১) ভাষার মূল উপাদান – ধ্বনি

২) আভরণ শব্দের অর্থ – অলংকার

৩) মন্ত্রের সাধন কিংবা শরীর পাতন এখানে কিংবা – বিয়োজক অব্যয়

৪) ঢাকের কাঠি বাগধারার অর্থ – তোষামুদে

৫) বাবুর্চি – তুর্কি শব্দ

৬) শুদ্ধ বানান – মূর্ধন্য

৭) চীনা শব্দ – চা, চিনি

৮) ভাষায় সর্বনাম ব্যবহারের উদ্দেশ্য – বিশেষ্যের পুনরাবৃত্তি দূর করা

৯) সন্ধির প্রধান সুবিধা – উচ্চারণে

১০) কর্মভোগ এড়ানো যায় না এখানে কর্ম অর্থ – কৃতকর্ম

১১) তুমি না বলেছিলে আগামীকাল আসবে? এখানে না – প্রশ্নবোধক অর্থে

১২) পাবক শব্দের সমার্থ – অগ্নি

১৩) মৃন্ময়ী যে উপন্যাসের নায়িকা – সমাপ্তি

১৪) তুমি যাও – অনুজ্ঞা

১৫) সঠিক যে টি – পথের দাবী ( উপন্যাস)

১৬) আত্নঘাতি বাঙালী – নীরদচন্দ্র চৌধুরীর গ্রন্থ

১৭) চতুরঙ্গ পত্রিকার সম্পাদক – হুমায়ুন কবির

১৮) রবীন্দ্রনাথের রচনা – চতুরঙ্গ

১৯) আবোল তাবোল কার – সুকুমার রায়

২০) ফোর্ট উইলিয়াম কলেজের বাংলা বিভাগের প্রধান ছিলেন – উইলিয়াম কেরি

২১) প্রত্যয়গতভাবে শুদ্ধ – উৎকর্ষতা

২২) অমিত্রাক্ষর ছন্দের বৈশিষ্ট্য – অন্তমিল থাকেনা

২৩) চাঁদ – তদ্ভব শব্দ

২৪) পুণ্যে মতি হোক এখানে পুণ্যে – বিশেষ্য

২৫) তার বয়স বেড়েছে কিন্তু বুদ্ধি বাড়েনি – যৌগিক বাক্য

২৬) আনারস, চাবি – পর্তুগিজ শব্দ

২৭) শুদ্ধ বানান – নির্নিমেষ

২৮) বাংলা ভাষায় যতি চিহ্নের প্রচলন করেন – ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগর

২৯) সংশয় এর বিপরীত শব্দ – প্রত্যয়

৩০) ইহলোকে যা সামান্য নয় – আলোক সামান্য

৩১) শশী ও কুমুদ চরিত্র দুটি – পুতুল নাচের ইতিকথার

৩২) ভাষায় সাহিত্যের গাম্ভীর্য ও আভিজাত্য প্রকাশ পায় – সাধু ভাষায়

৩৩) রাত্রির সমার্থক নয় – বারিদ

৩৪) ব্রজবুলি হলো – মৈথিলি ভাষার একটি উপভাষা

৩৫) অভিধানে আগে বসবে – চাঁটি শব্দি

৩৬) গাহি সাম্যের গান, ধরণীর হাতে দিল যারা আনি ফসলের ফরমান – নজরুলের সাম্যবাদী কবিতার লাইন

৩৭) অভিনিবেশ শব্দের অর্থ – মনোযোগ

৩৮) সঠিক বাক্য – আমার কথাই প্রমাণিত হলো

৩৯) সন্ধ্যায় সূর্য অস্ত যায় – নিত্যবৃত্ত অতীত

৪০) সাধুরীতির বৈশিষ্ট্য – সর্বনাম ও ক্রিয়াপদ এক বিশেষ গঠন পদ্ধতি মেনে চলে।

 বাংলাদেশ ব্যাংক এডি ২০১৩, ২০১৪

১) ঢাক ঢাক গুড় গুড় বাগধারার অর্থ – গোপন রাখার প্রয়াস

২) কোনটি পরিচ্ছদ – শিমুল

৩) যৌগিক বিশোষণের উদাঃ – পন্ডিত জনোচিত উক্তি

৪) প্রত্যয়ান্ত শব্দ – পিপাসা

৫) কোন ত্রয়ীবানান শুদ্ধ – মুমূর্ষু, সংঘর্ষ, বিমর্ষ

৬) কোনটি অঙ্গ ভূষণ – মেখলা

৭) Transliteration এর পরিভাষা – প্রতিবর্ণীকরন

৮) শেক্সপীয়রের টেমিং অব দি শ্রু বাংলা অনুবাদ করেন – মুনীর চৌধুরী

৯) পদাবলীর রচয়িতা – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

১০) এক জাতীয় নয় – তনয়

১১) শামসুর রাহমানের গদ্য গন্থ – স্মৃতির শহর

১২) তুলনাজ্ঞাপক শব্দ – প্রমিত

১৩) লোকটা যে পিছনে লেগেই রয়েছে, কী বিপদ!! এখানে কী – বিরক্তি বোঝায়

১৪) বুদ্ধদেব বসু সম্পাদিত পত্রিকা – কবিতা

১৫) সমার্থক নয় – মরৎ

১৬) The window panes steamed up এর বাংলা – জানালার কাচ ঝাপসা হয়ে গেল

১৭) হাসি ও ব্যঙ্গের নজরুল কাব্য – পুবের হাওয়া

১৮) সমাস গঠিত শব্দ – নরপুঙ্গর ( দ্বন্দ্ব সমাস)

১৯) যৌবন এর বিপরীত শব্দ – জরা

২০) ছেমড়া শব্দটি – সংস্কৃত

২১) দহন কাল উপন্যাস এর জন্য বাংলা একাডেমী সাহিত্য পুরস্কার ২০১২ পদক পান – হরিশংকর

জলদাস

২২) জাফর ইকবালের প্রথম প্রকাশিত সায়েন্স ফিকশন – কপোট্রনিক সুখ দুঃখ ( ১৯৭৬)

২৩) চাচা কাহিনীর লেখক – সৈয়দ মুজতবা আলী

২৪) সোনালী কাবিন কাব্যের রচয়িতা – আল মাহমুদ

২৫) তোমাকে পাওয়ার জন্য হে স্বাধীনতা পংক্তিটির রচনা করেন – শামসুর রাহমান

২৬) শুব্দ বানান – মুমূর্ষু

২৭) যে নারী প্রিয় কথা বলে – প্রিয়ংবদা

২৮) দশানন কোন সমাস – বহুব্রীহি

২৯) Executive – এর পরিভাষা – নির্বাহী

৩০) পর্যালোচনা এর সন্ধি বিচ্ছেদ – পরি + আলোচনা

৩১) মেধাবী শব্দের প্রকৃতি প্রত্যয় – মেধা + বিণ

৩২) গোঁফ খেজুরে অর্থ – নিতান্ত অলস

৩৩) অন্ধজনে দেহ আলো এখানে অন্ধজনে কারক বিভক্তি – সম্প্রদানে ৭মী

৩৪) পৃথিবী শব্দের প্রতিশব্দ নয় – বারি

৩৫) কচ্ছপের কামড় বাগধারার অর্থ – নাছোড় বান্দা

৩৬) লাঠা লাঠি – বহুব্রীহি সমাস

৩৭) ভুল প্রতিশব্দ – ইচ্ছা- পরশ্রীকাতরতা

৩৮) ঠাকুরমার ঝুলি কি জাতীয় সংকলন – রুপকথা

৩৯) সৌম্য এর বিপরীত – উগ্র

৪০) জীবন্মৃত এর ব্যাসবাক্য – জীবিত থেকেও যে মৃত

 বাংলাদেশ ব্যাংক এডি ২০১১, ২০১২

১) আপদ এর বিপরীত শব্দ – সম্পদ

২) ভূত এর বিপরীত শব্দ – ভবিষ্যৎ

৩) শান্ত এর বিপরীত শব্দ – অনন্ত

৪) কৃতঘ্ন এর বিপরীত শব্দ – কৃতজ্ঞ

৫) অশুদ্ধ বাক্য – সর্বদা পরিস্কৃত থাকিবে

৬) শুদ্ধ বাক্য – তুমি কি ঢাকা যাবে??

৭) শুদ্ধ বাক্য – রহিমা পাগল হয়ে গেছে

৮) শুদ্ধ বাক্য – বুনো ওল, বাঘা তেতুল

৯) বায়ু শব্দের সমার্থক শব্দ – বাত

১০) চাঁদ এর সমার্থক শব্দ – নিশাপতি

১১) সমুদ্র শব্দের সমার্থক – পাথার

১২) রাজা শব্দের সমার্থক – নরেন্দ্র

১৩) জল শব্দের সমার্থক শব্দ – অম্বু

১৪) কৌমুদির প্রতিশব্দ নয় – নলিনী

১৫) অরুন এর প্রতিশব্দ নয় – বিজলী

১৬) নিকেতন এর প্রতিশব্দ নয় – তোয়

১৭) রামা এর প্রতিশব্দ নয় – সুত

১৮) শিক্ষককে শ্রদ্ধা কর। এখানে শিক্ষককে – সম্প্রদান ৭ মী বিভক্তি

১৯) পৌরসভা কোন সমাস – ৬ষ্ঠী তৎপুরুষ সমাস

২০) অর্ক এর প্রতিশব্দ নয় – অনিল

২১) কোনটি সঠিক – আপাদমস্তক

২২) দশানন কোন সমাস – বহুব্রীহি সমাস

২৩) ভূত এর বিপরীত শব্দ – ভবিষ্যত

২৪) রক্ত করবী – নাটক

২৫) বসুমতী শব্দের সমার্থক – ধরিত্রী

২৬) পরার্থ শব্দের অর্থ – পরোপকার

২৭) যে নারী প্রিয় কথা বলে – প্রিয়ংবদা

২৮) সাত সাগরের মাঝি কাব্য – ফররুখ আহমেদ এর

২৯) বৃষ্টি এর সন্ধি বিচ্ছেদ – বৃষ+তি

৩০) রবীন্দ্রনাথের রচনা নয় – বিষের বাঁশী

৩১) গুরুজনে ভক্তিকর এখানে গুরুজনে – কর্মকারক

৩২) বনফুল যার ছদ্মনাম – বলাইচাঁদ মুখোপাধ্যায়

৩৩) surgeon এর পরিভাষা – শল্য চিকিৎসক

৩৪) হে বঙ্গ ভান্ডারে তব বিবিধ রতন কার কবিতার লাইন – মাইকেল মধুসূদন দত্ত

৩৫) ব্যথার দান – কাজী নজরুল রচিত গল্প

৩৬) সংশপ্তক কার – শহীদুল্লাহ কায়সার

৩৭) পর্যালোচনার সন্ধি বিচ্ছেদ – পরি + আলোচনা

৩৮) অম্বর শব্দের অর্থ – আকাশ

৩৯) নিরানব্বইয়ের ধাক্কা – সঞ্চয়ের প্রবৃত্তি

৪০) শুদ্ধ বানান – পিপীলিকা

৪১) প্রবচন – পুরোনো চাল ভাতে বাড়ে

৪২) দারিদ্রতা শব্দটি অশুদ্ধ – প্রত্যয়জনিত কারনে।

#বাংলাদেশ_ব্যাংক_এডি ২০১০, ২০০৯, ২০০৮

১) কোন বানানটি সঠিক – ভদ্রোচিত

২) উনপাঁজুরে শব্দরে অর্থ – দুর্বল

৩) উত্তম পুরুষের উদাঃ – আমি

৪) দিনের আলো ও সন্ধ্যার আঁধারে মিলন – গোধূলী

৫) যা দীপ্তি পাচ্ছে – দেদীপ্যমান

৬) আকাশ শব্দের সমার্থক নয় – হিমাংশু

৭) দেশী শব্দ – চাল, চুলা

৮) সন্ধি শব্দের বিপরীত শব্দ – বিয়োগ

৯) কোনটির লিঙ্গান্তর হয় না – কবিরাজ

১০) সকল সভ্যগণ এখানে উপস্থিত ছিলেন এর শুব্দ রুপ – সভ্যগণ এখানে উপস্থিত ছিলেন

১১) বাঁধ্ + অন = বাঁধন কোন শব্দ – কৃদন্ত শব্দ

১২) ধাতু কয় প্রকার – ৩ প্রকার

১৩) রচনাটির উৎকর্ষতা অনস্বীকার্য এর শুব্দ রুপ – রচনাটির উৎকর্ষ অনস্বীকার্য

১৪) দশে মিলে করি কাজ এখানে দশে – কর্তৃকারকে ৭মী বিভক্তি

১৫) স্বরসংগতির উদাহরন – দেশী> দিশী

১৬) পাতায় পাতায় পড়ে নিশির শিশির এখানে পাতায় পাতায় – অধিকরণে ৭মী বিভক্তি

১৭) যে বহু বিষয় জানে – বহুজ্ঞ

১৮) যৌগিক স্বরধ্বনি – ঐ

১৯) সূর্য এর প্রতিশব্দ নয় – হিমকর

২০) কবর কবিতাটি কোন কাব্যের – রাখালী

২১) আহসান হাবীব এর কাব্যগ্রন্থ – আশার বসতি, ছায়াহরিণ, সারাদুপুর

২২) যাহা দিলাম তাহা উজাড় করিয়া দিলাম। – রবীন্দ্রনাথের হৈমন্তী গল্পের উক্তি

২৩) হাজার বছর ধরে রচনা করেন – জহির রায়হান

২৪) এখানে তোর দাদির কবর ডালিম গাছের তলে, তিরিশ বছর ভিজায়ে রেখেছে দুই নয়নের জলে।

এর পরের লাইন — এতটুকু তারে ঘরে এনেছিনু সোনার মত মুখ

২৫) তপুকে আবার ফিরে পাবো, একথা ভুলেও ভাবিনি কোন দিন — জহির রায়হানের একুশের গল্পের

উক্তি

২৬) রবীন্দ্রনাথ নোবেল পান – ১৯১৩ সালে

২৭) রবীন্দ্রনাথের রচনা নয় – মৃত্যু ক্ষুধা

২৮) ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের পারিবারিক পদবি – বন্দোপাধ্যায়

২৯) সুকান্ত ভট্টাচার্য মৃত্যুবরন করেন – ২১ বছরে

৩০) রবীন্দ্রনাথের জন্ম – ২৫ বৈশাখ,১২৬৮ বাংলা

৩১) জীবন থেকে নেয়া, স্টপ জেনোসাইড, লেট দেয়ার বি লাইট – জহির রায়হানের রচনা

৩২) মহাশশান মহাকাব্য – কায়কোবাদ রচনা করেন

৩৩) সনেট এর পংক্তি – ১৪ টি

৩৪) বাংলা কাব্যে অমিত্রাক্ষর ছন্দের প্রবর্তক – মাইকেল মধুসূদন দত্ত

৩৫) পদ্মা নদীর মাঝি যার লেখা – মানিক বন্দোপাধ্যায়

৩৬) রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কাব্য গ্রন্থ নয় – নৌকাডুবি

৩৭) রাজবন্দীর জবানবন্দী কার – কাজী নজরুল ইসলাম

৩৮) গগনে গরজে মেঘ, ঘন বরষা পরের লাইন – কূলে একা বসে আছি, নাহি ভরসা

৩৯) যা অধ্যয়ন করা হয়েছে – অধীত

৪০) যিনি বক্তৃতা দানে পটু – বাগ্মী

 বাংলাদেশ ব্যাংক এডি ২০০৬, ২০০৪

১) কষ্টে অতিক্রম করা যায় যা – দুরাতিক্রম্য

২) The rose is a fragrant flower এর বাংলা – গোলাপ সুগন্ধি ফুল

৩) পত্রের গর্ভাংশ বলে – মূল বিষয়কে

৪) কে জানে দেশে সুদিন আসবে কিনা। বাক্যটি প্রকার করে – অনশ্চিয়তা

৫) প্রদীপ নিভে গেল। বাক্যটি – সাধারণ অতীত কালের

৬) আমার ভাইয়ের রক্তে রাঙ্গানো একুশে ফেব্রুয়ারি গানটির রচয়িতা – আঃ গাফফার চৌধুরী

৭) সংশয় এর বিপরীত – প্রত্যয়

৮) আরোহন এর বিপরীত – অবরোহণ

৯) সূর্য এর প্রতিশব্দ – আদিত্য

১০) জসীমউদদীন রচিত গ্রন্থ – সোজন বাদিয়ার ঘাট

১১) শুদ্ধ বাক্য – আজ কাল বানানের ব্যাপারে সব ছাত্রই অমনোযোগী

১২) শুদ্ধ বানান – আলস্য, ঘূর্ণায়মান

১৩) প্রতিশব্দ নয় – আগুন – কর, আনন্দ- দিপ্তী, বন- সরোজ

১৪) যে সত্য কথা বলে, তাকে সকলে বিশ্বাস করে এর সরল বাক্য – সত্যবাদীকে সকলে বিশ্বাস করে

১৫) সঠিক অর্থ সমূহ – হাতের পাঁচ- শেষ সম্বল, চাঁদের হাট- প্রিয়জন সমাগম, কাক নিদ্রা- অগভীর

নিদ্রা, শিরে সংক্রান্তি – আসন্ন বিপদ, একচোখা – পক্ষপাত দুষ্টু

১৬) দুর্দিনের যাত্রী গ্রন্থের রচয়িতা – কাজী নজরুল ইসলাম

১৭) বিদ্রোহী কবিতাটি কোন কাব্যের – অগ্নিবীণা

১৮) আবার আসিব ফিরে ধান সিঁড়িটির তীরে কোন কবির কথা – জীবনন্দ দাশ

১৯) মধ্যযুগের বাংলা সাহিত্যের শ্রেষ্ঠ কবি – ভারত চন্দ্র

২০) হরতাল – গুজরাটি শব্দ

২১) জাতীয় স্মৃতি সৌধের স্থপতি – সৈয়দ মঈনুল হোসেন

২২) সোজন বাদিয়ার ঘাট এর রচয়িতা – জসীম উদদীন

২৩) শরৎচন্দ্রের রচনা নয় – চোখের বালি

২৪) শুদ্ধ বানান – স্বায়ত্তশাসন

২৫) অপপ্রয়োগের দৃষ্টান্ত – একত্রিত

২৬) শকট শব্দের অর্থ – মাছ

২৭) শেষ লেখা কি জাতীয় রচনা – কাব্য

২৮) যে বিষয়ে কোন বিবাদ নেই – অবিসংবাদী

২৯) কাজলা দিদি কি – যতীন্দ্রমোহন বাগচী রচিত কবিতা

৩০) নীল দর্পন নাটক প্রকাশিত হয় – ঢাকা থেকে

৩১) মেঘনাদবধ কাব্য প্রকাশিত হয় – ১৮৬১ সালে

৩২) পদ্মাবতী কার রচনা – আলাওল

৩৩) ভানুসিংহ যার ছদ্মনাম – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

৩৪) রবীন্দ্রনাথ নোবেল পান – ১৯১৩ সালে

৩৫) বাংলা উপসর্গ – অনা

৩৬) চন্ডীদাস যে যুগের কবি – মধ্যযুগ

৩৭) কলা দেখানো অর্থ – ফাঁকি দেয়া

৩৮) বেগম রোকেয়ার রচনা নয় – পদ্মনী

৩৯) প্রথম বাংলা পত্রিকা – দিকদর্শন

৪০) হাত চালাও মানে – তাড়াতাড়ি করা

৪১) কোন রচনার জন্য নজরুলের জেল হয় – আনন্দময়ীর আগমনে

৪২) বঙ্কিম এর বিপরীত –ঋজু

#সোনালী_ব্যাংক_অফিসার, সিনিয়র অফিসার ২০১৪, ২০১৩

১) অপোগন্ড শব্দের অর্থ – অপ্রাপ্তবয়স্ক, অপদার্থ

২) বাবা – তুর্কি শব্দ

৩) বাজারে কাটা অর্থ – বিক্রি হওয়া

৪) বীরবল ছদ্মনাম – প্রমথ চৌধুরী

৫) সওগাত শব্দের অর্থ – উপহার

৬) ব্যাঘাত এর বিশেষণ – ব্যাহত

৭) ফুলদানি শব্দের দানি- র ভাষিক পরিচয়, – শব্দপ্রত্যয়

৮) বাংলা ভাষায় সনেট প্রবর্তন করেন – মধুসূদন দত্ত

৯) বিলাসী গল্পটি – শরৎচন্দ্রের

১০) সিডর – সিংহলি ভাষার শব্দ

১১) দোহারা শব্দের অর্থ – মোটাও নয়, রোগাও নয়

১২) অপপ্রয়োগের দৃষ্টান্ত – নির্ভরশীলতা

১৩) Barren শব্দরে অর্থ – ঊষর

১৪) অশুদ্ধ বানান – মরুদ্যান, আয়ত্ব

১৫) জঙ্গম শব্দের অর্থ – গতিশীল

১৬) পাঞ্জেরী কবিতাটি – ফররুখ আহমেদ এর

১৭) ক্ষুণ্নিবৃত্তি এর সন্ধিবিচ্ছেদ – ক্ষুধ+ নিবৃত্তি

১৮) বায়স শব্দের অর্থ – কাক

১৯) নজরুল ইসলাম সম্পাদিত পত্রিকা – লাঙ্গল

২০) কবর নাকটটি – মুনীর চৌধুরীর

২১) বাংলা উপন্যাসের জনক – বঙ্কিম চন্দ্র চট্টোপাধ্যায়

২২) সন্ধি ব্যাকরণের আলোচিত হয় – ধ্বনিতত্ত্বে

২৩) রাবণের চিতা বাগধারার অর্থ – চির অশান্তি

২৪) শিখা পত্রিকা কোন সংগঠনের – মুসলিম সাহিত্য সমাজ

২৫) কমলা কান্তের দপ্তর যে শ্রেণীর রচনা – প্রবন্ধ

২৬) বিজ্ঞান শব্দের বি উপসর্গের অর্থ – বিশেষ

২৭) আমার সন্তার যেন থাকে দুধে ভাতে এই প্রার্থনা – ঈশ্বরী পাটনীর

২৮) দশে মিলে করি কাজ বাক্যে দশে – কর্তৃকারকে ৭মী বিভক্তি

২৯) নজরুল কারাবরণ করেন – আনন্দময়ীর আগমনে কবিদার জন্য

৩০) বেগম রোকেয়ার রচনা – মতিচুর, পদ্মরাগ, অবরোধবাসিনী

৩১) স্বাধীনতা হীনতায় কে বাঁচিতে চায় কার কথা – রঙ্গলাল বন্দ্যোপাধ্যায়

৩২) বাংলায় টি.এস এলিয়টের কবিতা প্রথম অনুবাদ করেন – রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

৩৩) এ সাবানে কাপড় কাচা চলবে না এখানে সাবানে – করনে ৭মী

৩৪) জানালা শব্দটি – ফারসি শব্দ

৩৫) বাংলা ভাষার প্রথম সাময়িকী – দিক দর্শন

৩৬) ড. মুহাম্মদ শহীদুল্লাহর মতে বাংলা ভাষার উৎপত্তি – গৌড়ীয় প্রাকৃত থেকে

৩৭) বসন্তকুমারী নাটকের রচয়িতা – মীর মশাররফ হোসেন

৩৮) বাংলা সাহিত্যে ছন্দের যাদুকর – সত্যেন্দ্রনাথ দত্ত

৩৯) পড়েছি মোগলের সাথে খানা খেতে হবে এক সাথে। এর অর্থ – বিপদে পড়ে কাজ করা।

সোনালী ব্যাংক অফিসার, সিনিয়র অফিসার ২০১০

১) শুদ্ধ বানান – মুহুর্মুহু

২) যে পুরুষ বাচক শব্দের দুটি স্ত্রী বাচক শব্দ আছে – ভাই

৩) টীকা ভাষ্য বাগধারাটির অর্থ – দীর্ঘ আলোচনা

৪) পাথরে পাঁচ কিল বাগধারার অর্থ – প্রবল সৌভাগ



১। বাংলাদেশের বর্তমান মাথাপিছু আয় -১৭৫২মার্কিন ডলার

২। বাংলাদেশের বর্তমান জিডিপি প্রবৃদ্ধি হার -৭.৬৫%

৩। বঙ্গবন্ধু -১ স্যাটেলাইট কবে উৎক্ষেপণ হয়? ১১ মে, ২০১৮

৪। বাংলাদেশকে কবে উন্নয়ন শীল দেশের ক্যাটাগরির শর্ত পূরণ করে ?১৬ মার্চ ,২০১৮।

৫। ডাক বিভাগের অার্থিক লেনদেনের জন্য চালু টাকার নাম কী ?=ডাকটাকা।

৬।দেশের ১ম ফিশ ওয়ার্ল্ড একুরিয়াম কোথায় ?=কক্সবাজারে

৭.চতুর্থ প্রজন্মের (ফোর-জি) টেলিযোগাযোগ সেবা চালু হয় কবে

=১৯ফেব্রুয়ারি (২০১৮)

৮.শেখ হাসিনা সেনানিবাস কোথায় অবস্থিত?=লেবুখালী, পটুয়াখালী

৯।পাকিস্তানের পার্লামেন্টের উচ্চ কক্ষে প্রথম হিন্দু দলিত নারী সিনেটর

=কৃষ্ণা কুমারি কোহলি

১০। পাটের তৈরি পলি ব্যাগ / সোনালী ব্যাগ তৈরীর আবিষ্কারক কে?

= ডঃ মুবারক আহমদ খান।।।

১১।স্টিফেন হকিং মৃত্যুবরণ করেন=১৪ মার্চ, ২০১৮

১২। দেশের ১২ তম বা সর্বশেষ সিটি কর্পোরেশন কোনটি ?= ময়মনসিংহ

১৩। বাংলা সন কত?= ১৪২৫

১৪। দেশের বর্তমান মুদ্রাস্ফীতির হার কত ? = ৫.৬৮%

১৫। মুন্সি গন্জে ২ মার্চ উন্মোচন করা ''পতাকা ৭১''ভাস্কর্যটির ভাস্কর কে?

= রুপম রায়।

১৬।দেশের প্রথম নারী প্রোগ্রামার কে ?= শাহেদা মুস্তাফিজ

১৭।জাতীয় ভোটার দিবস কবে ?=১ মার্চ

১৮।মালদ্বীপের বর্তমান প্রেসিডেন্টের নাম কী ?=Abdulla Yamin.

১৯।পূর্ব গৌতা ও ডুমা শহরটি অবস্থিত কোথায় ?= সিরিয়া

২০। সুখী দেশের তালিকায় বাংলাদেশের বর্তমানঅবস্থান কততম ?=১১৫ তম

২১। কমনওয়েলথ এর বর্তমান সদস্য কত?= ৫৩ ( নতুন গাম্বিয়া )

২২।সম্প্রতি মঙ্গল গ্রহে পৌঁছানো ''মঙ্গলযান''প্রেরনকারী দেশের নাম কী ? =ভারত

২৩।বিশ্ব অটিজম দিবস কবে ?=২রা এপ্রিল

২৪।স্বাধীনতা পদক কত জনকে দেওয়া হয়?= ১৮

২৫।বাংলাদেশের কোনটিকে ২০১৮ সালের product of the year ঘোষণা করা হয়?=ওষুধ

২৭. মালয়েশিয়ার বর্তমান প্রধানমন্ত্রী কে?= মাহথির মোহাম্মদ ।

২৭.মুক্তিবেটী কাঁকন বিবি কোন সম্প্রদায়ের ছিলেন?=খাঁসিয়া।

২৮. "বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট-১" বহনকারী রকেটের নাম কী? = ফ্যালকন-৯

২৯. মালয়েশিয়ার বর্তমান প্রধানমন্ত্রী মাহথির মোহাম্মদ এর আগে কত বছর ক্ষমতায় ছিলেন?= ২২ বছর

৩০. ২০১৮ সালে মালয়েশিয়ায় কত তম সাধারণ নির্বাচন হয়েছে?= ১৪তম



সোনালী ব্যাংক সিনিয়র অফিসার পদের পরীক্ষার প্রস্তুতি

# সাম্প্রতিক_তথ্য

সাম্প্রতিক বিবিএস সমীক্ষা অনুসারে বাংলাদেশের আর্থ - সামাজিক সূচকগুলোর অবস্থান:

১। বাংলাদেশ পরমাণু ক্লাবে যুক্ত হয় - ৩২তম দেশ হিসেবে।

২। ইউনেস্কো ঘোষিত বাংলাদেশের ৪র্থ অধরা সংস্কৃতি - শীতল পাটি বুনন(২০১৭)

৩। ওআইসি'র ৪৫তম পররাষ্ট্রমন্ত্রী সম্মেলন - ঢাকা, বাংলাদেশ(২০১৮)

৪। জি-৭ এর ৪৪তম শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে - কুইবেক, কানাডা(৮-৯জুন,২০১৮)

৫। দশম ব্রিকস(BRICS) সম্মেলন হবে - জোহানেসবার্গ, দঃ আফ্রিকা(২০১৮)

৬। আসিয়ান(ASEAN) এর ৩২ তম সম্মেলন হয় - সিঙ্গাপুর(২০১৮)

৭। জি-২০ এর ১৩তম সম্মেলন হবে - বুয়েন্স আয়ার্স, আর্জেন্টিনা(৩০ন

ভে.- ০১ডিসে)

৮। জাপানের বর্তমান এবং ১২৫ তম সম্রাট আকিহিতো সিংহাসন ত্যাগ করবেন - ৩০ এপ্রিল, ২০১৯

৯। জাতিসংঘে শান্তিরক্ষী প্রেরণে শীর্ষদেশ - ইথিওপিয়া(২য়- বাংলাদেশ)

১০। WIPO'র বর্তমান সদস্য দেশ - ১৯১ টি।

১১। WIPO'র ১৯১ তম সদস্য দেশ - পূর্ব তিমুর।

১২। পরবর্তী ১২তম বিশ্বকাপ ক্রিকেট অনুষ্ঠিত হবে - ইংল্যান্ড(২০১৯)

১৩। সপ্তম T-20 বিশ্বকাপ ক্রিকেট হবে - অস্ট্রেলিয়া(২০২০)।

১৪। আন্তর্জাতিক এইডস এর ২২তম সম্মেলন হবে - আমস্টারডাম, নেদারল্যান্ডস।

১৫। কমনওয়েলথ গেমস এর ২১তম আসর হবে - গোল্ডকোস্ট, অস্ট্রেলিয়া।

১৬। পরবর্তী ২০২২ বিশ্বকাপ ফুটবল হবে - কাতার।

১৭। ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলের 'মাসকট' - জাবিভাকা।

১৮। বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সেতুর নাম হচ্ছে - হংকং-জুহাই-ম্যাকাও ব্রিজ(দৈর্ঘ্য ৫৫কি.মি)

১৯। নবম আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি অনুষ্ঠিত হবে - ভারত(২০২১)।

২০। বর্তমানে রেমিট্যান্স প্রাপ্তিতে বাংলাদেশের অবস্থান - নবম(১ম দেশ - ভারত)

২১। এবারের ন্যাটো শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে - ব্রাসেলস, বেলজিয়াম।

২২। ষুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী স্বীকৃতি দেয় - ০৬ডিসেম্বর,২০১৭

২৩। ভারতের কংগ্রেস দলের বর্তমান সভাপতি - রাহুল গান্ধী।

২৪। ২০১৮ সালের ওয়ার্ল্ড বুক ক্যাপিটাল হচ্ছে - এথেন্স, গ্রীস।
২৫। হু(WHO) কর্তৃক সর্বশেষ পোলিওমুক্ত দেশ - গ্যাবন।



Update General Knowledge (GK)

১. ২ ফেব্রুয়ারি নতুন ২২ তম প্রধান বিচারপতি সৈয়দ মাহমুদ হোসেন নাম ঘোষণার কয়েক ঘণ্টার মধ্যে আপিল বিভাগের জ্যেষ্ঠতম বিচারপতি মো. ওয়াহ্হাব মিঞার পদত্যাগ।

২. দেশে আসা এ পর্যন্ত নিবন্ধিত রোহিঙ্গার সংখ্যা ১০ লাখ ২০ হাজার ৮০০ জন। বায়োম্যাট্রিক পদ্ধতিতে এ নিবন্ধনের কাজ করছে বাংলাদেশ সেনাবাহিনী, বিজিবি ও আনসার। গত বছরের ১১ সেপ্টেম্বর থেকে এ কাজ চলছে।

৩. ফলভাবে দূরপাল্লার অগ্নি-৫ ক্ষেপণাস্ত্র উৎক্ষেপণ ভারতের। ক্ষেপণাস্ত্রটি ৫৫০০ থেকে ৫৮০০ কিলোমিটার দূরের লক্ষ্যে আঘাত হানতে সক্ষম।

৪. বর্তমানে দেশে সাক্ষরতার হার ৭১ শতাংশ। এর মধ্যে নারী সাক্ষরতার হার ৬৮.৯ এবং পুরুষ সাক্ষরতার হার ৭৩ শতাংশ। জেলাওয়ারি ঢাকার সাক্ষরতার হার সবচেয়ে বেশি।

৫. হাইতির নাগরিকদের জন্য যুক্তরাষ্ট্রের ভিসা বন্ধ করে দিল ট্রাম্প প্রশাসন।

৬. পদ্মা সেতুর জাজিরা প্রান্তে ৩৮ ও ৩৯ নম্বর খুঁটিতে বসল ১৫০ মিটার দীর্ঘ দ্বিতীয় স্প্যান। সেতুতে এ রকম স্প্যান বসবে ৪১টি।

৭. রাজধানীর তেজগাঁও সাতরাস্তা থেকে কাওরান বাজার পর্যন্ত সড়কটির নতুন নাম হলো ‘মেয়র আনিসুল হক সড়ক’।

৮. অস্ট্রেলিয়া ওপেনের ফাইনালে মারিন সিলিচকে হারিয়ে রজার ফেদেরারের ২০তম গ্র্যান্ড স্লাম জয়।

৯. ৩১ জানুয়ারি প্রায় ১৫২ বছর পর পৃথিবীর মানুষ দেখল ‘সুপার ব্লু ব্লাড মুন’ বা বিশাল নীল রক্তাভ চাঁদ। সর্বশেষ এটি দেখা গিয়েছিল ১৮৬৬ সালের ৩১ মার্চ।

১০. ব্রিটিশ মন্ত্রিসভার প্রথম ভারতীয় বংশোদ্ভূত মুসলিম নারী মন্ত্রী হলেন নুস ঘানি।

১১. ৩ ফেব্রুয়ারি দেশের ২২তম প্রধান বিচারপতি হিসেবে শপথ নিলেন সৈয়দ মাহমুদ হোসেন। বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ তাঁকে শপথ পড়ান।

১২. অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে অস্ট্রেলিয়াকে ৮ উইকেটে হারিয়ে চ্যাম্পিয়ন ভারত। এটি ভারতের অনূর্ধ্ব-১৯-এর চতুর্থ শিরোপা জয়।

১৩. মুক্তিযোদ্ধাদের বয়সসীমা কমল ছয় মাস, এখন থেকে গেজেটভুক্ত সাড়ে ১২ বছর বয়সীরাও মুক্তিযোদ্ধা হিসেবে স্বীকৃতি পাবেন।

১৪. দেশের প্রথম ছয় লেনের ফ্লাইওভার উদ্ধবোধন করা হয় – ৪ জানুয়ারি ২০১৮। এই উড়াল সড়কের দৈর্ঘ্য – ৬৯০ মিটার।

১৫. বাংলাদেশের ইতিহাসে শীতলতম দিন – ৮ জানুয়ারি ২০১৮, সোমবার।

১৬. বাংলাদেশে সরকারি চাকুরিতে নিয়োগে কোটা রয়েছে – ২৫৭ ধরনের।

১৭. ২০১৮ সালের product of the year ঘোষণা – ওষুধ।

১৮. বাংলাদেশের সর্বোচ্চ ওয়াচ টাওয়ার – চরফ্যাশন, ভোলা।

১৯. ইসরায়েল UNESCO ‘র সদস্য পদ ছাড়বে – ৩১ ডিসেম্বর ২০১৮।

২০. ২০১৮ সালের জন্য জি ৭৭ এর চেয়ারম্যান দেশ – মিসর।

২১. WTO মন্ত্রী পর্যায়ের ১২ তম সম্মেলন অনুষ্ঠিত – ২০১৯ সালে।

২২. জাতিসংঘ কর্তৃক স্বীকৃত বিশ্বে মোট প্রচলিত মুদ্রার সংখ্যা – ১৮০ টি।

২৩. ৮ জানুয়ারি ২০১৮ দেশের ইতিহাসের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল – ২.৬ ডিগ্রি।

২৪. বর্তমান মন্ত্রিসভার সদস্য সংখ্যা – ৫৩ জন।

২৫. বর্তমানে প্রধান তথ্য কমিশনার – মরতুজা আহমদ।

২৬. সর্বনিম্ন তাপমাত্রা রেকর্ড করা হয় – তেঁতুলিয়া, পঞ্চগড়।

২৭. বিশ্বের বৃহত্তম উভচর উড়োজাহাজ AG 600 তৈরি করে – চীন।

২৮. ২০১৭ সালের ICC’ র বর্ষসেরা ক্রিকেটার – বিরাট কোহেলি।

২৯. মোবাইল ইন্টারেনেটের গতিতে শীর্ষ দেশ – নরওয়ে , বাংলাদেশ ১২১ তম।

৩০. ফিক্সড ব্রডব্যান্ড গতিতে শীর্ষে – সিঙ্গাপুর, বাংলাদেশ ৮৩ তম।

৩১. দীর্ঘ ৪২ বছর পর জাতিসংঘের স্বল্পোন্নত দেশের তালিকা থেকে বের হয়ে উন্নয়নশীল দেশের স্বীকৃতি পাবে – মার্চ ২০১৮।

৩২. বাংলেদেশকে উন্নয়নশীল দেশের তালিকাভুক্ত করা হবে – ২০২৪ সালে, বাংলাদেশ LDCs ভুক্ত হয় – ১৯৭৫ সালে।

৩৩. দেশের ২৯ তম গ্যাস ক্ষেত্র আবিষ্কৃত হয় – ভোলার মাঝিরহাটে।

৩৪. দেশের প্রথম আল কোরআন ভাস্কর্য নির্মিত হয় – ব্রাক্ষণবাড়িয়া।

৩৫. চর বিজয় নামে নতুন চরের সন্ধান পাওয়া যায় – পটুয়াখালি।

৩৬. দেশের দীর্ঘতম ভাসমান সেতু নির্মিত হয়েছে – যশোরের মনিরামপুরে।

৩৭. বাংলাদেশ বিমানের প্রথম ফ্লাইট যাত্রা করে – ঢাকা থেকে চট্টগ্রামে, ৪ ফেব্রুয়ারি ১৯৭২।

৩৮. রোহিঙ্গাদের সুরক্ষায় জাতিসংঘের সাধারন পরিষদে প্রস্তাব পাস – ২৪ ডিসেম্বর ২০১৭ সালে। এই প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দেয় – ১২২ টি দেশ। এই প্রস্তাবের বিপক্ষে ভোট দেয় – ১০ টি দেশ। এই প্রস্তাবটি জাতিসংঘে উথাপন করে – OIC।

৩৯. বিশ্বের শীতলতম গ্রাম – ওয়াইমিয়াকোন, রাশিয়ায়।

৪০. সাহারা মরুভূমির প্রবেশদ্বার হিসেবে পরিচিত – আলজেরিয়ার এইন সেফরা এলাকা।

৪১. বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে আইন করে নারী পুরুষের বেতন সমান করা হয় – আইসল্যান্ডে, ১ জানুয়ারি ২০১৮

৪২. সম্প্রতি নিউজিল্যান্ড সেই দেশের Mount Taranaki পাহাড়কে – ব্যক্তির মর্যাদা দেয়া হয়।

৪৩. বিশ্বের বৃহত্তম ডুবো গুহার সন্ধান পাওয়া গেছে – মেক্সিকোতে।

৪৪. ব্রিটেনের ইতিহাসে মন্ত্রীসভায় প্রথম মুসলিম নারী মন্ত্রি – নূস ঘানি, ৯ জানুয়ারি ২০১৮।

৪৫. বিশ্বের বৃহত্তম সৌরতাপ বিদ্যুৎ কেন্দ্র নির্মিত হবে – অস্ট্রেলিয়ায়।

৪৬. রাশিয়ার ইতিহাসে প্রথম মুসলিম নারী প্রেসিডেন্ট প্রার্থী হবেন – আয়না গামজাতোভা নামে এক নারী।

৪৭. জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদে প্রথম ভেটো প্রদানকারী দেশ – সোভিয়েত ইউনিয়ন, ১৯৪৬।

৪৮. অসলো চুক্তি হয়েছিল – ১৯৯৩ সালের ১৩ সেপ্টেম্বর।

৪৯. আলোচিত হুলিয়ান শহরটি – তাইওয়ান।

৫০. বাংলাদেশের তৈরি পোশাকের সবচেয়ে বড়বাজার – যুক্তরাষ্ট্র। পোশাক রপ্তানিতে যুক্তরাষ্ট্রে বাংলাদেশের অবস্থান – ৩য়। যুক্তরাষ্ট্রে পোশাক রপ্তানিতে প্রথম ও দ্বিতীয় যথাক্রমে – চীন ও ভিয়েতনাম!!!

৫১. দেশের সর্বশেষ সেনানিবাস - পটুয়াখালী। উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা- ৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮।

সোনালি ব্যাংকের সিনিয়র অফিসার নিয়োগ পরীক্ষার জন্য কম্পিউটার অংশ(বিগত সালের সোনালী ব্যাংক প্রশ্ন)

Sonali Bank Officer (Cash)
2018 (27.04.2018)
1. The process of transferring file from a computer on the Internet to your computer is called
Ans: Downloading
2. Verification of a logging name & password is known
Ans: authentication
3. A special type of memory chip that hold software that can be read but not written to
Ans: Rom
4. The set of instructions that tells the computer what to do
Ans: Software
5. Which of the following will not protect you from spam
Ans: popup blockers
6………… controls the way in which the computer system functions & provides a means by which users can interact with the computer
Ans: Operating system
7. All of the following are example of real security & privacy risk Except
Ans: Spam
8. Which of the following is used for close a tap on the browser
Ans: ctrl+w
9. When cutting & pasting, cutting section is temporary store in
Ans: clipboard
10. Which of the following is a correct format of Email address
Ans: care@website.com
Sonali Bank Officer-2018 (30.03.2018)
1. The process of identifying and correcting mistakes in a computer program is referred to as:
Ans: Debugging
2. Which protocol provides e-mail facilities among different hosts?
Ans: SMTP
3. Which of the following is not an output device?
Ans: Mouse
4. Which computer memory is never erased?
Ans: ROM
5. One nibble equals to:
Ans: 4 bits
Sonali Bank IT Officer 2016
1. In MS Power Point, shortcut for creating a new slide is:
Ans: Ctrl+M
2. Which of the following is an operating system?
Ans: Unix
3. Which of the following is not an output device?
Ans: Mouse
4. Which of the following is not a Data transmission medium?
Ans: Search engine
5. The process of identifying and correcting mistakes in a computer program is referred to as:
Ans: Debugging
6. Which one is not word processing software?
Ans: MS Excel
7. Which computer memory is never erased?
Ans: ROM
8. Which one works as an output and input device?
Ans: Modem
9. 1 byte is equal to-
Ans: 8 bits
10. Which of the following is spreadsheet software?
Ans: MS Excel
11. Which of the following is the save button in computer keyboard?
Ans: F12
12. When you start your computer then which component works first?
Ans: BIOS
13. The computer stores its program and data in its:
Ans: Memory
14. Which software is more useful in preparing a report with statistical and accounting analysis?
Ans: Excel
15. One nibble equals to-
Ans: 4 bits
16. A hard disk is divided into tracks which are further subdivided into:
Ans: Sectors
17. The last of the IP address represents the address of:
Ans: Protocol
18. Common keyboard arrangement is called:
Ans: QWERTY
19. Which is the name of the structure where data move through a network?
Ans: Firefox
Sonali Bank Senior Officer
2014 (22.08.14)
১। কোনটি আউটপুট ডিভাইস?
Ans: মনিটর।
২। কম্পিউটারে সকল ডাটা ও প্রোগ্রাম সংরক্ষণ করে-
Ans: মেমরি।
৩। একটি প্রিন্টারের আউটপুট এর মান পরিমাপ করা হয়-
Ans: Dot per inch(DPI)
৪। ‘INF’ কোন ধরনের ফাইল?
Ans: সিস্টেম ফাইল।
৫।বাংলাদেশে প্রথম ইন্টারনেট ভিত্তিক নিউজ এজেন্সি হচ্ছে –
Ans: বিডি নিউজ (BD News).
৬। কোনগুলো সেকেন্ডারি স্টোর ডিভাইজ এর উদাহরণ-
Ans: Hard Disk, Floppy Disk, CD, CD-RW DVD-RW, DVD-ROM, DVD-R, Blue Ray DVD, Smart Card, Memory Card, SSD, Pen Drive etc.
৭। কোনগুলো ইনপুট ডিভাইজ?
Ans: Keyboard, Mouse, Scanner, Light Pen, Graphics Tablet, WebCam, Joy-stick, Sensor, OMR, OCR,MICR, Barcode Reader, Punch Card Reader, Magnetic Tape Drive, Digitizer etc.
৮। কোনটি অপটিক্যাল ডিভাইজ–এর উদাহরণ?
Ans: সিডি ড্রাইভ(CD Drive ).
৯ । ATM এর পূর্ণরুপ হচ্ছে-
Ans: Automated Teller Machine.
১০। কোনগুলো সিস্টেম সফটওয়্যার/Operating System -এর উদাহরণ –
Ans: MS DOS, PC DOS, MS Windows, MS Windows NT, Linux, Unix, Mac OS, Sun-Solaries, XENIX, AIX, Symbian, Adroid, Be OS .
১১। সাবমেরিন ক্যাবল প্রযুক্তিতে কোন ধরনের মাধ্যম ব্যবহৃত হয়?
Ans: অপ্টিক্যাল ফাইবার।
১২। VSAT বলতে কি বুঝায়?
Ans: Very Small Aperture Terminal.
১৩। Apple প্রযুক্তির সাথে কোন ব্যক্তি ওতপ্রোতভাবে জড়িত ছিলেন?
Ans: স্টিভ জবস ।
১৪ ।কম্পিউটারের মেমোরি কোনটি?
Ans: রম (ROM)
১৫। কোনগুলো মাদার বোর্ড (Mother board) – এর অংশ
Ans: Memory & Storage, Power Supply, Hard Disk, DVD Drive, Video Card, Sound Card etc.
Sonali Bank Officer & Officer (Cash)-2014 (22.08.14)
১। ব্যাংকিং শিল্পে কোন ধরনের স্ক্যানার ব্যবহার হয় ?
Ans: এমআইসিআর (MICR).
২। SIM –এর পূর্ণরুপ হচ্ছে-
Ans: Subscriber Identity Module
৩। ইন্টারনেটের ব্যবহার শুরু হয় কোন সালে ?
Ans: ১৯৬৯
৪। কম্পিউটার বিশ্বে কিংবদন্তি কে ?
Ans: বিল গেটস।
৫। উইন্ডোজ(Windows) হচ্ছে একটি –
Ans: অপারেটিং সিস্টেম।
৬। কোনগুলো ওয়ার্ড প্রসেসিং প্রোগ্রাম (word processing system)?
Ans: MS Word, Word Perfect, Note Pad, Word Pad, Word Star, PFS Write, Latex, Display Writer, Mac Write, Dox Writer, Lotus WordPro etc.
৭। কোনগুলো এন্টিভাইরাস –
Ans: Norton, McAfee, AVG, Avira, Kaspersky, Symantec, Microsoft Security Essential, ESET NOD32, Panda, Avast, Bitdefender, PC Tools, Zone Alarm, PC Cillin, Cobra (Bangladesh) etc.
৮। LAN বলতে কি বুঝায় ?
Ans: Local Area Network.
৯। Trojan Horse হচ্ছে-
Ans: একটি ভাইরাস।
১০। Microsoft Excel একটি –
Ans: ডাটাবেইজ প্রোগ্রাম ।
১১। কোন প্রোগ্রামটি কম্পিউটারে সি-ড্রাইভে থাকে ?
Ans: উইন্ডোজ(Windows)।
১২। মোডেম একটি –
Ans: কনভারশন টুল।
১৩। ইন্টারনেট সেবা প্রদানকারী কোম্পানীকে কি বলা হয় ?
Ans: ISP(Internet Service Provider)।
১৪। কোন কার্ডের বিপরীতে ব্যাংক থেকে ঋণ পাওয়া যায় ?
Ans: Credit Card.
১৫।কোন সংখ্যা পদ্ধতিটি কম্পিউটারে ডাটা সংরক্ষণে ব্যবহৃত হয় ?
Ans: (Binary).
Sonali Bank Senior Officer-2013(29.03.13)
1. Common keyboard arrangement is called?
Ans: QWERTY
2. Which types of interfaces allow connect, control musical instruments to computer?
Ans: MIDI
3. Every web pages has a unique address called-
Ans: Uniform Resource Locator (URL).
4. Which are the application package?
Ans: Word Package Software, Spreadsheet Analysis Software, Graphics Software , Graphics Animation Software, Desktop Publications Software , Web Browsing Software, Presentation Software, Database Management System(DBMS), Computer Aided Design/Drafting(CAD),Multimedia Software, Mail User Agent/E-mail Reader/E-mail Client etc .
5. In data communication which device converts digital signal to analog signal?
Ans: Modem.
6. Which type of ROM is used in pen drive?
Ans: EEPROM.
7. A RAM chip is labeled as ‘2M*16’. What is word size of the RAM?
Ans: 8 bits.
8. Which are both input & output device?
Ans: Touch Screen, Modem, VCR, VTR, VCP, TY & Tape Recorder, Camera etc .
9. Which one is Layer 3(Network Layer) protocol?
Ans: IP.
10. In most application ‘F1’ stands for
Ans: Help.
11. Elaboration of VIRUS is-
Ans: Vital Information Resource Under Seize.
12. Which of the following device does not scanning as a first step in its working principal?
Ans: Plotter.
13. In a flowchart, a diamond generally stands for-
Ans: decision.
14. The file extension EXE generally refers to what kind of file?
Ans: Executable file.
15. In an email address ‘aaa@bbb.ccc’, the portion ‘bbb’ indicates.
Ans: Domain name.
16. The type of internet connection might be compared to a regular telephone call, In terms of duration:
Ans: Dial up.
17. What does the term SCSI stands for?
Ans: Small Computer System Interface.
18. Which must do the return compressed files to their original state?
Ans: Extract
19. The term dot per inch (dpi) refers to-
Ans: Resolution.
Sonali Bank Officer & officer (Cash)
2013 (29.03.13)
1. The function of Gateway is –
Ans: to connect two dissimilar networks.
2. 1 byte means –
Ans: 8bits.
3. The ASCII code of ‘A’ is –
Ans: 65.
4. URL means –
Ans: Uniform Resource Locator.
5. The size of internet protocol (IP) address is –
Ans: 32 bits.
6. RAM is –
Ans: Volatile.
7. Which are the application software?
Ans: Word Package Software, Spreadsheet Analysis Software, Graphics Software , Graphics Animation Software, Desktop Publications Software , Web Browsing Software, Presentation Software, Database Management System(DBMS), Computer Aided Design/Drafting(CAD),Multimedia Software, Mail User Agent/E-mail Reader/E-mail Client etc.
8. The OSI model has –
Ans: 7 Layers (Physical, Data-link, Network, Transport, Session, Presentation, Application)
9. A Record is a –
Ans: collection of fields.
10. SQL means-
Ans: Structured Query Language.
11. OMR means –
Ans: Optical Mark Recognition.
12. Firmware is built using –
Ans: ROM.
13. Control Unit –
Ans: directs the movements of electrical signals.
14. Flash memory –
Ans: Non-volatile.
15. The most frequently used instructions are kept in the-
Ans: Cache memory.
16. PCMCIA represents a standard for –
Ans: Notebook.
17. The size of a sector in hard disk is –
Ans: 512 bytes.
18. Which is an essential component of a LAN?
Ans: NIC.
19. In simplex transmission –
Ans: data can travel in only one direction at all times.
20. Bandwidth means –
Ans: bit per second
Sonali Bank Senior Officer-2010 (05.11.10)
1. Which number system is used to store data in computer?
Ans: Binary.
2. Which is a keyboard command to copy some text in MS word?
Ans: Ctrl + C.
3. Which is an example of optical storage device?
Ans: Hard Disk.
4. Mechanical devices in the computer are called-
Ans: Hardware.
5. Which is the predecessor of modern internet?
Ans: ARPANET.
6. Which is used to display web contents?
Ans: Web browser.
7. Which searches websites by keyboard(s)?
Ans: Search engine.
8. Company which provides internet service is called –
Ans: ISP(Internet Service Provider).
9. Which cannot be done using email?
Ans: Copy files from a remote computer.
10. A byte consists of how many bits –
Ans: 8.
11. Which is an example of spreadsheet software?
Ans: MS Excel.
12. Which is an extension of video file format in computers?
Ans: .mpg.
13. Which is the fastest data transmission media?
Ans: Fiber Optic Cable.
14. Which device is required to set up a LAN?
Ans: NIC(Network Interface Card.
15. Which are an example of Open Source Operating Systems?
Ans: OpenSolaris (Ubuntu, Redhat, Fedora, SUSE, Debian) Linux, OpenBSD, NetBSD, FreeBSD, Haiku, GNU HURD, eCos, Darwin, Oberon, Plan 9, React OS etc.
Sonali Bank Senior Officer-2009
১। কম্পিউটারে কোনো হিসাব নিকাশ করার জন্য কোন সফটওয়্যারটি উপযোগী?
Ans: Ms Excel.
২। কোনটি ড্যাটা পরিবহনের জন্য সুবিধাজনক?
Ans: পেনড্রাইভ।
৩। কোনো ই-মেইল পাঠাতে হলে নিচের কোনটি অবশ্যই লিখতে হয়?
Ans: প্রাপকের ই-মেইল ঠিকানা।
৪। কোনটি একটি অ্যাপ্লিকেশন সফটওয়্যার?
Ans: এমএসওয়ার্ড।
৫। বিজয় লে-আউটে বাংলা লেখার সময় ‘ন’ বর্ণটি লিখতে কীবোর্ডে ইংরেজি কোন বর্ণটি চাপতে হবে?
Ans: B.
৬। কোনটি তার বিহীন দ্রুতগতির ইন্টারনেট সংযোগের জন্য উপযোগী?
Ans: ওয়াই-ম্যাক্স।
৭। কোনো ওয়েবসাইটের ‘www’অর্থ কি ?
Ans: World Wide Web.
৮। কোনো ই-মেইলে ‘CC’এর অর্থ কি?
Ans: Carbon Copy.
৯। কোনটি বাংলা লেখার সফটওয়্যার?
Ans: বিজয়।
১০। কম্পিউটারের ভাইরাস কি?
Ans: একটি ক্ষতিকারক প্রোগ্রাম ।
১১। কম্পিউটারকে ইন্টারনেটে সংযুক্ত করার জন্য কোন যন্ত্রাংশটি আবশ্যক?
Ans: মডেম।
১২। কম্পিউটারের কোন যন্ত্রাংশের ক্ষমতার উপর মনিটরে দৃশ্যমান ছবির গুণগত মান নির্ভর করে?
Ans: ভিজিএ কার্ড।
১৩। কোনো প্রোগ্রামের ভুল বের করাকে কি বলে?
Ans: ডিবাগিং ।
১৪। কোন প্রটোকলটি ইন্টারনেট সংযোগের ক্ষেত্রে সর্বাধিক ব্যবহ্রত হয়?
Ans: TCP/IP.
১৫। কোনটি একটি কম্পিউটার ভাইরাস?
Ans: CIH


সোনালী ব্যাংক সিনিয়র অফিসার পদের পরীক্ষার প্রস্তুতি
সাম্প্রতিক_তথ্য
সাম্প্রতিক বিবিএস সমীক্ষা অনুসারে বাংলাদেশের আর্থ - সামাজিক সূচকগুলোর অবস্থান:
• জনসংখ্যা -
• মাথাপিছু আয়-
• মাথাপিছু GDP -
• GDP 'র প্রবৃদ্ধির হার-
• GDP 'তে কৃষি খাতের প্রবৃদ্ধির হার-
• GDP 'তে কৃষি খাতে অবদানের হার-
• GDP 'তে শিল্প খাতের প্রবৃদ্ধির হার-
• GDP 'তে শিল্প খাতের অবদানের হার-
• GDP 'তে সেবা খাতের প্রবৃদ্ধির হার-

১। বাংলাদেশ পরমাণু ক্লাবে যুক্ত হয় - ৩২তম দেশ হিসেবে।
২। ইউনেস্কো ঘোষিত বাংলাদেশের ৪র্থ অধরা সংস্কৃতি - শীতল পাটি বুনন(২০১৭)
৩। ওআইসি'র ৪৫তম পররাষ্ট্রমন্ত্রী সম্মেলন - ঢাকা, বাংলাদেশ(২০১৮)
৪। জি-৭ এর ৪৪তম শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে - কুইবেক, কানাডা(৮-৯জুন,২০১৮)
৫। দশম ব্রিকস(BRICS) সম্মেলন হবে - জোহানেসবার্গ, দঃ আফ্রিকা(২০১৮)
৬। আসিয়ান(ASEAN) এর ৩২ তম সম্মেলন হয় - সিঙ্গাপুর(২০১৮)
৭। জি-২০ এর ১৩তম সম্মেলন হবে - বুয়েন্স আয়ার্স, আর্জেন্টিনা(৩০ন
ভে.- ০১ডিসে)
৮। জাপানের বর্তমান এবং ১২৫ তম সম্রাট আকিহিতো সিংহাসন ত্যাগ করবেন - ৩০ এপ্রিল, ২০১৯
৯। জাতিসংঘে শান্তিরক্ষী প্রেরণে শীর্ষদেশ - ইথিওপিয়া(২য়- বাংলাদেশ)
১০। WIPO'র বর্তমান সদস্য দেশ - ১৯১ টি।
১১। WIPO'র ১৯১ তম সদস্য দেশ - পূর্ব তিমুর।
১২। পরবর্তী ১২তম বিশ্বকাপ ক্রিকেট অনুষ্ঠিত হবে - ইংল্যান্ড(২০১৯)
১৩। সপ্তম T-20 বিশ্বকাপ ক্রিকেট হবে - অস্ট্রেলিয়া(২০২০)।
১৪। আন্তর্জাতিক এইডস এর ২২তম সম্মেলন হবে - আমস্টারডাম, নেদারল্যান্ডস।
১৫। কমনওয়েলথ গেমস এর ২১তম আসর হবে - গোল্ডকোস্ট, অস্ট্রেলিয়া।
১৬। পরবর্তী ২০২২ বিশ্বকাপ ফুটবল হবে - কাতার।
১৭। ২০১৮ রাশিয়া বিশ্বকাপ ফুটবলের 'মাসকট' - জাবিভাকা।
১৮। বিশ্বের দীর্ঘতম সমুদ্র সেতুর নাম হচ্ছে - হংকং-জুহাই-ম্যাকাও ব্রিজ(দৈর্ঘ্য ৫৫কি.মি)
১৯। নবম আইসিসি চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি অনুষ্ঠিত হবে - ভারত(২০২১)।
২০। বর্তমানে রেমিট্যান্স প্রাপ্তিতে বাংলাদেশের অবস্থান - নবম(১ম দেশ - ভারত)
২১। এবারের ন্যাটো শীর্ষ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হবে - ব্রাসেলস, বেলজিয়াম।
২২। ষুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী স্বীকৃতি দেয় - ০৬ডিসেম্বর,২০১৭
২৩। ভারতের কংগ্রেস দলের বর্তমান সভাপতি - রাহুল গান্ধী।
২৪। ২০১৮ সালের ওয়ার্ল্ড বুক ক্যাপিটাল হচ্ছে - এথেন্স, গ্রীস।
২৫। হু(WHO) কর্তৃক সর্বশেষ পোলিওমুক্ত দেশ - গ্যাবন।


Listen If you have any complaints about this article or PDF, you must have the ability to report against this content or PDF. Content will be removed within 72 hours of you filing a complaint against this post by the original author or owner. Learn more..

Recent Updates:

1 comment

  1. I’m not that much of a internet reader to be honest but your blogs really nice, keep it up!

    I'll go ahead and bookmark your website to come back later on. Cheers
Trending Content Of This Weekends

সবাই বলে থাকেন পড়াশোনা কৌশলে করতে হবে। কিন্তু কেউ এই কৌশলটা বলেন না এবং আমরাও পড়াশোনার সঠিক কৌশল সম্পর্কে জানি না। কৌশল বিষয়টা আপেক্ষিক। কারণ সবার কৌশল কখনো একরকম হবে না। একেক জনের কৌশল একেক রকম। তবে কিছু কিছু বিষয় আছে যা সবার ক্ষেত্রে প্রায় একই হয়ে থাকে।

আসলে কৌশল বলতে কী বুঝায়?
কৌশলের কোন সুনির্দিষ্ট সংজ্ঞা নেই৷ আমি কিছু উদাহরণের মাধ্যমে কৌশল সম্পর্কে আপনাদের ধারণা দেওয়ার চেষ্টা করছি-

বিসিএস প্রিলিতে বর্তমান সিলেবাস অনুযায়ী গণিত থেকে ১৫ মার্ক আসে। কিন্তু এই ১৫ মার্কের জন্য ৫ টি ভাগ আছে অর্থাৎ পাটিগণিত থেকে ৩ নম্বর, মান নির্নয় থেকে ৩, সূচক থেকে ৩, বিন্যাস ও সমাবেশ থেকে ৩ এবং জ্যামিতি থেকে ৩ মোট ১৫ মার্ক। এখানে পাটিগণিত আপনি সারাক্ষণ করেও তিন এ তিন পাবেন না। অথচ আপনি চাইলেই একটু চেষ্টা করলে সহজে মান নির্নয়, সূচক, জ্যামিতি থেকে সহজেই ৯ থেকে ৭/৮ পাবেন। বিন্যাস ও সমাবেশ থেকে ২ মার্ক পাওয়া সহজ। বিষয় হচ্ছে এখানে কৌশলের কী আছে?

এখানে কৌশলের বিষয় হচ্ছে অনেক স্টুডেন্ট আছে তারা পাটিগণিতের উপর অধিক সময় নষ্ট করে দেয় অথচ এই পাটিগণিতে মার্ক হচ্ছে ৩। আপনি পাটিগণিতে দক্ষ হতে যেয়ে বাকী ১২ মার্ককে তেমন গুরুত্বপূর্ণ মনে করছেন না। অন্যদিকে যে বুদ্ধিমান, সে কৌশলে কীভাবে ১২ থেকে ১০ পাওয়া যায় সেটা নিয়ে চিন্তা করে। অর্থাৎ সে পাটিগণিত থেকে এগুলো বেশি গুরুত্বপূর্ণ মনে করে পড়ে । এই ১২ এর জন্য ৩ নাম্বারকে কম গুরুত্ব দেওয়ার নামই কৌশল। আর যে ৩ নম্বরকে গুরুত্ব দিতে যেয়ে ১২ নম্বরকে কম গুরুত্ব দেয় মনে করতে হবে তার কৌশলে সমস্যা আছে৷

যেকোনো জবের পরীক্ষা দেওয়ার আগে ওই জবের বিগত সালের পরীক্ষায় আসা প্রশ্ন সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারণা লাভ করা কৌশলের অংশ। অর্থাৎ ওই পরীক্ষা কত মার্কের হবে এবং প্রশ্ন সাধারণত কীভাবে করে এবং কী কী টপিকস থেকে বেশি প্রশ্ন আসে ওইগুলো সম্পর্কে জানা দরকার। প্রশ্নের রিপিট হয় কিনা ইত্যাদি বিষয় লক্ষ্য করা। প্রশ্নের প্যাটার্ন সম্পর্কে সুস্পষ্ট ধারণা না থাকলে, ভালো করা যাবে না ।

কোনো জবের পরীক্ষাতে শতভাগ প্রশ্ন কমন আসে না এবং আসবেও না। ধরুন, বিসিএস প্রিলিতে ২০০ টি প্রশ্ন আসে এরমধ্যে ৩০/৩৫ টি প্রশ্ন আসে যেগুলো সাধারণত কোন নির্দিষ্ট বইয়ে পাওয়া যায় না।কিন্তু বাকী ১৬৫/৭০ টি প্রশ্ন বইয়ে পাওয়া যায়। এই খানে দেখা যায় যে আনকমন ৩০/৩৫ টি প্রশ্ন সিলেবাস থেকে এসেছে কিনা বা কোথায় থেকে এসেছে এগুলো নিয়ে চিন্তা করতে গিয়ে অনেক সময় নষ্ট করা হয়ে থাকে৷

কিন্তু কৌশল হচ্ছে যে, যে ১৬৫/১৭০ টি প্রশ্ন সিলেবাস থেকে এসেছে তা বারবার পড়া এবং সিলেবাস অনুযায়ী পড়া। অনেকেই ওই ৩০/৩৫ টি প্রশ্নের জন্য ১৬৫/১৭০ টি প্রশ্নকে গুরুত্ব দেন না। তখন বুঝতে হবে আপনার কৌশলে সমস্যা আছে। কারণ পাশ করতে ১২০+ সাধারণত কখনোই লাগে না। তাই ওই ৩০/৩৫টি প্রশ্ন যেগুলো সিলেবাসে নাই সেগুলোর চিন্তা বাদ দিয়ে, যেগুলো সিলেবাস থেকে আসে, সেগুলোতে গুরুত্ব দেওয়ার নামই হচ্ছে কৌশল।

কতগুলো টপিকস আছে যেগুলো থেকে প্রতিবার প্রশ্ন আসেই। এর মধ্যে কিছু আছে কঠিন এবং কিছু সহজ৷ যেহেতু এসব টপিকস থেকে প্রশ্ন আসেই, তা বার বার পড়া। আবার কিছু কিছু টপিক আছে খুব কঠিন কিন্তু এগুলো থেকে কখনোই প্রশ্ন আসে না। তাই ওই কঠিন টপিকগুলো যেগুলো থেকে প্রশ্ন আসে না, সেগুলোকে বাদ দিয়ে পড়া কৌশলের অংশ।

বিভিন্ন বই থেকে বিভিন্ন টপিক পড়া বাদ দিয়ে বরং একই টপিক বিভিন্ন বই থেকে পড়ার নাম হচ্ছে কৌশল। অর্থাৎ আপনি যখন কোন টপিক পড়বেন ওই টপিক সম্পর্কে বিভিন্ন বইয়ে যা দেওয়া আছে তা বারবার পড়বেন৷ মানে হচ্ছে, একই টপিক বিভিন্ন বই থেকে পড়া। বিভিন্ন বই থেকে ভিন্ন ভিন্ন টপিক পড়া উচিত নয়।

কিছু অপ্রাসঙ্গিক বিষয় নিয়ে চিন্তা ও আলোচনা না করা। যেমন, বিশ্বে গম উৎপাদনের বাংলাদেশের অবস্থান কত? এক বইয়ে দেওয়া তৃতীয়, অন্যবইয়ে দ্বিতীয়। আপনি কোনটা সঠিক এটা নিয়ে ঘাঁটাঘাঁটি করতে করতে ৫/৬ ঘন্টা নষ্ট করলেন। অথচ আপনি যদি এই সময়টা সংবিধান, মুক্তিযুদ্ধ ও বাজেট ইত্যাদি টপিকগুলোর জন্য ব্যয় করতেন। তাহলে সহজেই ভাল মার্ক পেতেন। কারণ এগুলো থেকে প্রশ্ন আসেই কিন্তু গম উৎপাদনে বাংলাদেশের অবস্থান কত এধরণের প্রশ্ন কদাচিৎ আসে৷ কৌশল হচ্ছে, অনিশ্চিত প্রশ্ন বেশি না পড়ে, নিশ্চিত প্রশ্ন বেশি করে বারবার পড়া ।

অতিরিক্ত মডেল টেস্ট নির্ভর হওয়া, কখনোই ভাল সুফল বয়ে আনে না। কৌশল হচ্ছে আগে থিওরি পড়ে, পরে মডেল টেস্ট দেওয়ার চেষ্টা করা। কিন্তু অনেকেই দেখা যায়, শুধু মডেল টেস্ট দেয়, থিওরি পড়ে না। ফলে তার এই পড়াশোনাটা তেমন কাজে আসছে না।

নিউজপেপার পড়ার সময় যেগুলো জব রিলেটেড টপিক সেগুলো পড়া৷ অনেকেই দেখা যায় নিউজপেপার পড়ার সময় কোন জেলাতে ধর্ষণ হয়েছে, হত্যা হয়েছে এবং বিভিন্ন নায়ক -নায়িকার খবর পড়ায় বেশি মনোযোগ দেন।যেগুলো থেকে কোনদিন প্রশ্ন আসবে না সেগুলো পরিত্যাগ করা। আপনি শুধু জানার জন্যে, হেডলাইন পড়তে পারেন এসব নিউজের।কিন্তু কখনোই এগুলো নিয়ে গবেষণা করা যাবে না। আপনার দরকার জব। চাকরি পাওয়ার পর আপনি অনেক সময় পাবেন এসব পড়ার।

ইংরেজি ও বাংলা সাহিত্যের প্রশ্নটুকু সংক্ষিপ্ত হয়ে থাকে। কিন্তু দেখা গেল আপনি এই জন্য একের পর এক উপন্যাস ও গল্প বইয়ের বিস্তারিত পড়ছেন। কিন্তু পরীক্ষায় আসবে গল্পের লেখক কে এবং চরিত্র ও সংক্ষিপ্তভাবে তিন চার লাইনের মূল কথা কিন্তু আপনি এগুলোর জন্য পুরো গল্পের বই পড়ছেন। এগুলো আপনাকে জব পেতে তেমন সাহায্য করবে না।

আপনার মধ্যে পড়াশোনার ধারাবাহিকতার অভাব অর্থাৎ আপনি একদিন ১৪ ঘন্টা পড়লেন বাকী ৫ দিন ২ ঘন্টা করেও পড়লেন না। এভাবে কখনোই ভাল করতে পারবেন না। কৌশল হচ্ছে, ধারাবাহিকতা বজায় রেখে পড়া অর্থাৎ আজকে ৮ ঘন্টা পড়লে, আগামীকালও যেন ৮ ঘন্টা পড়তে পারেন। সেটা বজায় রাখা।

আশা করি,কৌশল সম্পর্কে মোটামুটি ধারণা পেয়েছেন। আমার পূর্বের লেখাগুলো পড়লে, অনেক কিছু জানতে পারবেন বলে আশা করি।
এরপর আর কী নিয়ে লেখা যায় বলেন ?
সবাই নিরাপদ ও ভাল থাকবেন। সবার শুভ কামনা রইল।

এস.এম. আলাউদ্দিন মাহমুদ
সহকারী জজ /জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট

মোহাম্মদ হানিফ‎ > to BCS or BANK : OUR GOAL™ [Largest Job group of Bangladesh]
পরিকল্পিত শ্রম বিফলে যায় না।
মামা বা টাকা ছাড়া একসাথে দুইটি সরকারি চাকুরী। যত সহজে কথাটা বলা যায়, এই জার্নিটা এত সহজ ছিলো না আমার। মাধ্যমিক ও উচ্চ মাধ্যমিকে বিজ্ঞান বিভাগে ছিলাম। তারপর অনার্স-মাস্টার্স শেষ করলাম ইংরেজি সাহিত্যে।
জব প্রস্তুতি মূলত শুরু করেছিলাম ২০১৮ সালের দিকে মাস্টার্স শেষ করে।অনার্স-মাস্টার্স খুব আরাম-আয়েশ কাটালাম কোচিং ও টিউশনির মোটা টাকায়। টিউশনিগুলো ছিলো লোভনীয়। কতবার ছাড়তে গিয়েও ছাড়তে পারিনি। সিদ্ধান্তহীনতা ও হতাশা হাতছানি দিচ্ছে মনে হলো।শেষ-মেষ সব ছেড়ে বিসিএস কনফিডেন্সে ভর্তি হলাম ৪০তম প্রিলি এক্সাম ব্যাচে।কোচিংয়ের লাইব্রেরিতে নিয়মিত পড়তাম।টানা এক-দেড় বছর লাইব্রেরিতে পড়ে রইলাম, শুধু রাতে মেসে হাজিরা দিতাম।দেখতাম,অনেকেই শুধু বিসিএস নিয়ে ৩/৪ বছর লাইব্রেরিতে পরে আছেন,ধ্যানমগ্ন।তাদের দেখে শিখলাম, ধৈর্য বা অধ্যাবসায় কাকে বলে। সাহস ও অনুপ্রেরণা পেয়েছি। আমি বিসিএস প্রস্তুতির মধ্যে ব্যাংকের পরীক্ষাগুলো মিস করতাম না। বাংলাদেশ ব্যাংকে (অফিসার জেনারেল) প্রিলি,রিটেন শেষ করে জীবনের প্রথম ভাইবা দিলাম।এক বুক আশা নিয়ে ছিলাম যে চাকুরি আমার হয়ে যাবে। কিন্তু চুড়ান্তভাবে সিলেক্টেড হয়নি। হয়তো রিটেন মার্কস কম ছিলো। তারপর আরও ৪/৫ টা ব্যাংকে রিটেন দিলাম,ফলাফল জিরো।আমি হতাশায় মশগুল।

২০১৯ সালে আবার শুরু ৪০তম বিসিএস রিটেন প্রস্তুতি।এত বড় সিলেবাস,আমি এক রকম পাগলপ্রায়। সবাই জানে আমি বিসিএস দিচ্ছি, ক্যাডার। কিন্তু আমিতো জানি মক্কা অনেক দূর। সবকিছু ভাবতাম পড়ার টেবিলে বসে। এই হতাশার মাঝে গভ.প্রাইমারি ও সাব-ইন্সপেক্টরে এক্সাম দেই।

ডিসেম্বরে প্রাইমারিতে আমার জব হয়ে যায়। প্রথম সরকারি জব। আমি উপজেলায়(৮৯) মেধাক্রমে প্রথম (জেনারেল),তৃতীয়(সম্মেলিত) হই। আত্মবিশ্বাস বেড়ে যায়। এর মধ্যে সাব- ইন্সপেক্টরের ফিল্ড টেস্ট, রিটেন পরীক্ষা শেষ করলাম। রিটেনে কোয়ালিফাইড হলাম।

সাব ইন্সপেক্টর ভাইবা, কম্বাইন্ড ব্যাংক রিটেন ও
৪০তম বিসিএস রিটেন একই সময়ে আগে পিছে পড়লো। ২৯ ডিসেম্বর/ ৩ জানুয়ারি/৪-৮ জানুয়ারি। মোটামুটি সব শেষ করলাম। এ বছর মার্চে রেজাল্ট হলো সাব-ইন্সপেক্টরে চুড়ান্তভাবে সুপারিশপ্রাপ্ত, দ্বিতীয় সরকারি জব। আমি লেগে ছিলাম, তাই আল্লাহ আমাকে নিরাশ করেননি।
৪০তম বিসিএস রিটেন ও বিবি রিটেনের রেজাল্ট পেন্ডিং রয়েছে।

আমি ফাঁকিবাজ ছিলাম।ইউটিউবে লিটারেচারের টিউটোরিয়াল দেখে আর গুগল মামার সহায়তায় অনার্স-মাস্টার্স শেষ করলাম। কিন্তু যেই পড়াশোনা এই এক-দেড় বছর জবের জন্য করেছি,তা সারাজীবনে হয়নি।আমার মতে,সারাজীবন কি পড়ছেন বা কি করছেন তা দরকার নেই। এখন জবের জন্য সর্বোচ্চ ইফোর্ট দেন। সব সেক্টরে এক্সাম দেন,ইনশাআল্লাহ আল্লাহ আপনাকে নিরাশ করবেন না।আর আমি পারলে আপনিও পারবেন। শুধু একটি বছর সবকিছু বাদ দিয়ে পড়াশোনায় দেউলিয়া হয়ে যান। মোট কথা লেগে থাকুন। সারাজীবন ভালো থাকার জন্য এক-দুই বছর না হয় স্যাক্রিফাইস করলেন।

আমার ব্যাক্তিগত অভিজ্ঞতা ও অনুভূতিগুলো শেয়ার করলাম যাতে -আপনারা হাল না ছেড়ে দেন। আলসামি করেন,আর ঘুমাইয়া থাকেন, পড়ার টেবিলে বসেই করেন। সবার জন্য শুভকামনা রইলো।
আরেকটি কথা; 'মামা বা টাকা ছাড়া সরকারি চাকুরী সম্ভব' এই কথাটি মাথায় রেখে পড়াশোনা করেন। জয় আপনার হবেই।
[বি.দ্রঃ কথাবার্তা বা লেখায় ভুলত্রুটি হলে ক্ষমা করবেন।]
মোহাম্মদ হানিফ
সহকারি শিক্ষক, গভ.প্রাইমারি স্কুল।
সাব-ইন্সপেক্টর(সুপারিশপ্রাপ্ত)৩৮তম ব্যাচ,
বাংলাদেশ পুলিশ।
৪০তম বিসিএস ভাইবা প্রতাশী।

EbraHim KhoLil > ‎Bankers Selection Guide(BSG)
Inspired Post:
হতাশ হয়েছি বহুবার কিন্তু দমে যায়নি বলেই আমি আজ পুলিশ ক্যাডার
পুলিশ অফিসার না -প্রথমে একটা চাকরি পাব, মা-বাবা খুশি হবে, বোনকে পড়াশোনা করাবো এটাই চেয়েছিলাম। এর বেশি কিছু না। ভয় আমারও হত, চাকরি হবে কি না। দ্রুত একটা চাকরি হোক, আমিও চাইতাম। সেটা হয় না, পরে বুঝলাম সময় লাগবেই। অনেকে বলত বাবা-মাকে আর কত কষ্ট দিবা বেসরকারি জবে ঢুকে পড়। বলতাম বাপ-মা টা আপনার না আমার, আমি জানি কষ্ট কি? মা বলত তুই এত লোভ করিস না ব্যাটা, মাসে ১০০০০-১৫০০০ টাকার একটা চাকরি হলেই চলবে।মনে মনে বলতাম কেউ বেটি দিবে না আর তোমার বেটিটারে কেউ নিয়ে যাবে না।আর স্টার জলসা মার্কা হলে তো, ফাস গায়া মেরে ইয়ার?
যে পরীক্ষা গুলোতে অংশগ্রহন করেছিলাম-
1. Primary exam two times prelim fail. রেজাল্ট বের হলে লজ্জায় বলতাম proxy মারতে গেছিলাম।
2. ২০১৫ সালের জানুয়ারি Janata Bank AEO (without preparation) Question দেখেই crash prelim fail.
3. SEQAEP দুই দুই বার নিল না আমাকে। কেঁদেছিলাম কারণ ছোটবোন SSC পাস করল, কিভাবে কলেজে ভর্তি করাবো আর পড়াশোনার খরচ দিব।
4. পরিবার পরিকল্পনা prelim fail.
5. BCSIR senior scintific officer viva(feb 2015) fail. Viva board খুব নাস্তানুবাদ করেছিল।খুব রাগ হয়েছিল । এখন মনে হয় সেটাই দরকার ছিল।
6. Janata bank AEO-IT written pass but Aptitude test fail. খুব কষ্ট হল। পাশের জন 30 second help করলে জব টা হয়ত বা হত।
7. Standard Bank viva-বলল ফুল মার্ক দিলেও জব হবে না। দেখি october (2017) মাসে appoinment letter পাঠাইসে রুমে পড়ে আছে।
8. Bangladesh Development Bank viva fail.(4-4-16) Viva বোর্ডে ঢুকেই Remand. রসায়নের ছাত্র ব্যাংকে কেন জব করবেন?? আমি বললাম স্যার বিজ্ঞানের ছাত্র ব্যাংকে প্রয়োজন আছে, তাছাড়া এটা তো রাস্ট্রীয় সিদ্ধান্ত।কিছুটা সান্ত হয়েছিল।কিন্তু আমি আরও অসান্ত হয়ে গেলাম।ভাবলাম written আরও ভালো করতে হবে।
9. NBR – 2015 viva fail. আনোয়ারা ম্যাডাম বলল 35th non cadre ওকে fail করাই দেন। মনে মনে বললাম বেতন তো সরকার দিবে, চাকরি টা দেন plz আর পারছি না।
10. দুদক AD prelim pass written attend করা হয়নি।
11. Bamgladesh bank AD, cash prelim pass written attend করা হয়নি।
12. RAKUB senior officer prelim fail. Very upset .
13. RAKUB officer viva(16-10-16) by Bangladesh Bank চুড়ান্ত ফলাফল Selected (6:20pm 22 may 2017)1st job বর্তমানে কর্মরত (dinajpur-setab ganj).
14. Circle Adjutant – চূড়ান্ত ফলাফল মেধাতালিকায় 12th out of 302.
15. 35th BCS prelim 08.03.15 (1st BCS) non cadre- NBR (Result may 2017)
16. 36th BCS written&viva খুব ভালো হয়েছিল – ASP 49th merit
17. 37th BCS 1st choice police viva attend করি নাই
Bangladesh Airforce two times 2015,2016 Red card-ISSB DP বলেছিল আপনার সব ঠিক কিন্তু নিব না BMA তে পারবেন না কঠিন training . তারপর 15 দিন মত মাথা কাজ করেনি। বাবা খুব কষ্ট পেয়েছিল।
হতাশ হয়েছি বহুবার কিন্তু দমে যায়নি বলেই আমি আজ পুলিশ ক্যাডার।
--------------------- কালেক্টেড।

Tauhidul Islam Duronto >>
Banking Career in Bangladesh (BCB)
#ভাইবা_অভিজ্ঞতাঃ
Combined 8 Banks/Financial Institutions (SO) under
Banker's Recruitment Committee
Board No-4
Serial - 10
Deputy Governor S K Sur Sir এর চেম্বার। যদিও তিনি উপস্থিত ছিলেন
না। চেয়ারম্যান স্যারসহ বোর্ড সদস্য ছিল পাঁচ জন।
এই প্রথম ভাইভা দিলাম যেখানে বুকে কাঁপুনি অনুভব করিনি। যেখানে অনেককে দেখলাম কোট টাই পড়ে ঘামছে। নোট খাতা, কারেন্ট অ্যাফেয়ার্স পড়তে পড়তে চিন্তিত হয়ে পড়ছে। আপুদের দেখলাম টিস্যু দিয়ে বারবার মুখ মুছতে। যাইহোক ভাইবার ডাক পড়লে আলতো করে দরজা চাপ দিয়ে মাথা বাড়িয়ে দিলাম। 'আসসালামু আলাইকুম।' বলে সবার দিকে দৃষ্টি ফিরিয়ে আনলাম। উপস্থিত সবাইকে দেখে সমবয়সী মনে হলো।
'May I come in Sir?' আমি দাঁড়িয়ে রইলাম। চেয়ারম্যান স্যার কাগজ দেখছিলেন। মুখ তুলে আসতে বললেন। দাঁড়িয়ে আছি দেখে বসতে বললেন।
-'Thank you sir' বলে আসন নিলাম।
'আপনার নাম?'
-'মোঃ তৌহিদুল ইসলাম।'
'ভার্সিটি?'
-'Rajshahi University, Sir'
'Good, subject?'
-'Accounting & Information Systems, Sir'
'হল কোনটা?'
-'সৈয়দ আমীর আলী হল।' আমি তো ভাবলাম রুম নং কত ছিল সেটাও জিজ্ঞাসা করবে। তবে সে প্রশ্ন পেলাম না।
'Home District?'
-'টাংগাইল, স্যার।'
'টাংগাইলে আপনার বাসা কোথায়?'
-'স্যার, ভূঞাপুর।'
'আচ্ছা, রাজশাহীতে যাবার রাস্তা তো গিয়েছে টাংগাইল দিয়েই?'
-'জি স্যার, সড়ক পথ, রেলপথ দুটাই গিয়েছে। বঙ্গবন্ধু সেতু হয়ে রাজশাহী।'
'তবে তো আপনার জন্য সুবিধা হয়েছিল।' স্যার মন্তব্য করলেন না প্রশ্ন করলেন বুঝলাম না।
-'জী স্যার।'
'Why Tangail is famous for?'
-'প্রথমত টাংগাইলের বিখ্যাত চমচম। তাছাড়া টাংগাইলের তাঁতের শাড়িও বিখ্যাত।'
'টাংগাইলে দেখার মতো কী কী আছে? মানে দর্শনীয় স্থান?'
-'বঙ্গবন্ধু সেতু, মহেড়া জমিদার বাড়ি, মধুপুরের জাতীয় উদ্যান, আরো ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কিছু জমিদার বাড়ি।'
'আপনি তো সন্তোষ এর কথা বললেন না। তাছাড়া আতিয়া জামে মসজিদ আছে।'
আরেক স্যার যোগ করলেন, 'ভারতেশ্বরী হোমস, কুমুদিনী হাসপাতাল, করটিয়া জমিদার বাড়ি এইসব তো বললেন না?'
-'স্যার বর্তমানে মানুষ ঘুরতে যায় মহেড়া জমিদার বাড়ি, পুনঃনির্মাণের ফলে সবকিছু ঝকঝকে আছে।'
'শুনেছিলাম জমিদার বাড়িটা পুলিশ ব্যবহার করছে?'
-'জী স্যার, পুলিশ ট্রেইনিং সেন্টার হিসাবে ব্যবহার হচ্ছে।'
'আপনি Cash Flow Statement এর নাম শুনেছেন?'
-'জী, স্যার।'
'Free Cash Flow Statement কি?'
আমি ভাবতে শুরু করলাম কিন্তু কম সময়ে উত্তর গোছাতে পারলাম না।
'FCFS' স্যার আবারো বললেন।
মনে মনে ভাবলাম ডাক্তারদের FCPS জানি আর একাউন্টিং পড়ে FCFS পারছি না!
-'Sorry Sir. Indirect Cash Flow, Direct Cash Flow পারব।
কিন্তু এই টার্মটা আমি ব্যাখ্যা করতে পারব না।'
'কী বলছেন?' চেয়ারম্যান স্যার বিষ্মিত হলেন।'
-'Sir frankly speaking, it is unknown to me'
'Cash flow cycle and operating cycle সম্পর্কে বলুন' পাশ থেকে এক স্যার প্রশ্ন করলেন।
-'Cash flow cycle হচ্ছে কাঁচামাল ক্রয় থেকে শুরু করে, উৎপাদন, বিক্রয়,
দেনাদারের কাছ থেকে নগদ আদায় এর চক্রাকার প্রক্রিয়া।
আর operating cycle সাধারণত পণ্য উৎপাদন প্রক্রিয়ার সাথে জড়িত। ব্যাখ্যা করে বলতে গেলে...' স্যার থামিয়ে দিলেন।
'দুটোর মধ্যে কোনটার Time Duration বেশি?'
-'স্যার Cash flow cycle এর'
'আপনার first choice কোন ব্যাংক?'
-'স্যার, সোনালি ব্যাংক লিমিটেড।' মনে মনে ভাবলাম সবগুলোর চয়েস অনুসারে
নাম বলতে বলে কিনা। গুছিয়ে নিলাম নিজেকে। কিন্তু স্যার কমন প্রশ্ন করে ফেললেন। 'সোনালি ব্যাংক এর কাজ কী?'
-'যেহেতু সোনালি ব্যাংক একটি কমার্সিয়াল ব্যাংক, এর মূল কাজ আমানত সংগ্রহ ও ঋণ প্রদান। তাছাড়া সরকারি বিভিন্ন পলিসি বাস্তবায়ন করে থাকে।'
'যেমন?' অন্য এক স্যার শোনার ইচ্ছা প্রকাশ করলেন।
-'বয়স্ক ভাতা, বিধবা ভাতা, মুক্তিযোদ্ধা ভাতা, যেখানে বাংলাদেশ ব্যাংকের শাখা নেই সেখানে তাদের হয়ে কাজ করা।'
'যেমন?' আবারো যেমন বললেন।
-'Clearing এ সাহায্য করা। Cash remittance করা, চালানের অর্থ সংগ্রহ করা।'
'স্প্রেড এর নাম শুনেছেন?' চেয়ারম্যান স্যার প্রশ্ন করলেন।
-'জী স্যার, ব্যাংকের ক্ষেত্রে স্প্রেড হলো Interest Income থেকে Interest expenses এর পার্থক্য।'
স্যার চুপ করে রইলেন। মনে হয় সিন্ধান্ত নিতে পারছেন না আমাকে নিয়ে। হয়তো FCFS এর উত্তর দিতে পারি নি তাই।
আমি যোগ করলাম, 'ধরি স্যার, আমি ঋণের লাভ নিচ্ছি তের শতাংশ হারে, আর আমানতের জন্য ব্যয় করতে হচ্ছে আট শতাংশ। এতে স্প্রেড হচ্ছে পাঁচ শতাংশ।'
'আর, কারো কোন প্রশ্ন?'
চেয়ারম্যান স্যার সবার দিকে তাকালেন। আমিও সবার দিকে তাকালাম। আমি প্রশ্ন আশা করছি। কিন্তু কেউ করলো না।
'আপনি আসুন।'
-'Thank you sir, আসসালামু আলাইকুম।' বলে সবার দিকে এক পলক তাকিয়ে বেরিয়ে এলাম স্বাভাবিক হৃদপিণ্ডের গতি নিয়ে।

আসিফ হাসান শিমুল >> ‎Banking Career in Bangladesh (BCB)>>
শুরু থেকেই শুরু হোক ব্যাংক প্রিপারেশনের পথ চলা!জীবনে সফলতার জন্য কোন শর্ট-কাট রাস্তা নেই।স্বস্তার কিন্তু তিন অবস্থা তাই শর্ট -কাট রাস্তা খুঁজলে ফলাফলটাও তেমনি আসবে।ব্যংকের প্রিপারেশন তেমন আহামরি কিছুনা বাট আপনি কতটা বুঝে পড়তে পারেন সেটাই মূল কথা।কোন কিছুকেই হালকাভাবে নেয়ার সুযোগ নেই।যাই পড়বেন খুব ভালভাবে বুঝে পড়ুন।নির্দিষ্ট একটি সিলেবাস করে ফেলুন যাতে ধারাবাহিকভাবে আপনি সিলেবাসটা কম্পলিট করতে পারেন!যে বিষয়ে আপনার দুর্বলতা বেশি সেই সাব্জকেটকে বেশি গুরত্ত দিন।
ম্যাথ আর ইংরেজিতে আপনি ভাল মানে আপনি ব্যাংকের জন্য ৭০% এগিয়ে গেলেন।তবে একেকজনের শক্তি আর সামর্থ্য এক না তাই আপনি ভাল বুঝবেন কোন সাব্জকেটকে বেশি গুরত্ত দিবেন!মানুষের জীবেন সফল হবার জন্য আরও কিছু বিষয় থাকে।যেমনঃ
১।সবার সাথে ভাল ব্যাবহার করা এতে মন ভাল থাকে যার ফলে যেকোনো কাজে আপনার ভাল লাগা কাজ করবে।
২।কাউকে কখনো ইগনোর করবেননা,এতে আপনাকেও একই পরিস্থির সম্মুখীন হতে হবে।
৩।যখন যে কাজটি করছেন ঠিক সেই কাজটিকেই গুরত্ত দিন।
৪।সময় এবং মানুষ উভয়কেই গুরত্ত দিন।
৫।বিপদে পেশেন্স রাখুন কারন বিপদ সাময়িক।
৬।হতাশাগ্রস্থ মানুষকে এড়িয়ে চলুন!
আগামী পোস্ট এ ব্যাংকের সিলেবাস এবং বইয়ের লিস্ট দেয়ার চেষ্টা থাকবে।
সিনিয়র অফিসার,
বাংলাদেশ কৃষি ব্যাংক।

Mahfuz Jami >> ‎Bangladesh Bank Exam Aid (BBEA) >>
সবচেয়ে খারাপ ভাইভা মনে হয় আমিই দিলাম। যাই হোক আসল কথায় আসি।
বিষয়ঃ ইলেক্ট্রিক্যাল এবং ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং ভাইভা বোর্ডঃ আব্দুর রহিম স্যার
ঢুকে সালাম দিলাম, বসার অনুমতি দিল পাশের একজন স্যার।
আমি ধন্যবাদ দিয়ে বসার আগেই রহিম স্যার প্রচন্ড বিরক্ত হয়ে জিজ্ঞেস করল " আচ্ছা তোমার ফিল্ডে কি জব নাই? এখানে আসছো কেন? "
আমিঃ (ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে) জি স্যার। বুঝলাম না।
স্যারঃ বললাম তোমার ইঞ্জিনিয়ারিং এর জব ফিল্ড বাদ দিয়ে এখানে আসছো কেন?
আমিঃ স্যার, আসলে আমাদের ফিল্ডে চাকুরির সুযোগ কম। (থতমত খেয়ে বেশি কিছু বলার ইচ্ছা থাকলেও আর বললাম না)
স্যারঃ আচ্ছা বল, হোয়াট ইজ ইঞ্জিনিয়ারিং? আবার বাংলায় একই প্রশ্ন ইঞ্জিনিয়ারিং কাকে বলে বল।
আমিঃ বাংলায় আস্তে আস্তে বললাম।
ডান পাশে বসা স্যারঃ উদাহরণ দিয়ে বুঝাও
আমিঃ একটা উদাহরণ দিয়ে বললাম।
স্যারঃ আচ্ছা ফিনান্সিয়াল ইঞ্জিনিয়ারিং নাম শুনেছ?
আমিঃ জি স্যার শুনেছি, আমাদের ইকোনমিক্স এর একটা কোর্সে ছিল। (মনে মনে বলি ওইসব কিছুই তো মনে নাই)
স্যারঃ বল তাহলে কি?
আমিঃ বানিয়ে বানিয়ে ফিনান্সের সাথে সম্পর্ক হয় কিছু একটা বলে দিলাম।
স্যারঃ (মাথা নাড়তে লাগলেন) হয়নি।
রহিম স্যারঃ আচ্ছা তুমি তো প্রকৌশল পড়েছ। বল প্রকৌশল আর প্রযুক্তির মধ্যে পার্থক্য কি?
আমিঃ (খানিকক্ষণ চিন্তা করে বললাম) সরি স্যার।
রহিম স্যার এবার হাসতে হাসতে অন্যদের বলতেছে, পড়ছে ইঞ্জিনিয়ারিং, আবার ব্যাংকে চাকুরির ভাইভা দিতে আসছে, (আমার দিকে তাকিয়ে), তাও এসব কি ব্যাংকে জব করবা, কি যেন নাম, পল্লী সঞ্চয়, আন্সার ভিডিপি, আমি বললাম জি স্যার।
রহিম স্যারঃ তো তুমি ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ে এইসব ব্যাংকে চাকুরি করবা এটা কেমন কথা, অন্য সব ভালো ব্যাংক হলেও একটা কথা ছিল। এটা কি তোমার স্ট্যাটাস এর সাথে যায়? হইছো ইঞ্জিনিয়ার, আর চাকুরি করবা পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক। হুম একবারে হইছে তাইলে। বলেই হাসা শুরু দিল।
আমিঃ(পুরাই ভ্যাবাচ্যাকা খেয়ে কিছুক্ষণ চুপচাপ বসে ভাবলাম আমি ভাইভা দিতে এসে একি বিপদে পরলাম, পরে অনেক কষ্টে সামলে বললাম) স্যার আমার ব্যাংকে চাকুরি করার খুবই ইচ্ছা।
স্যারঃ খুবই ইচ্ছা, আচ্ছা আচ্ছা ভালো। তাহলে বল হোয়াট ইজ ব্যাংকিং। ব্যাংকিং কাকে বলে?
আমিঃ( আমার তখনো ভ্যাবাচ্যাকা ভাব কাটেনি, আমতা আমতা করে বলতে লাগলাম বাংলায়) গ্রাহকদের থেকে আমনত সংগ্রহ করে এবং ঋণদাতাদের ঋণ প্রদান করে যে লাভ করার মাধ্যমে ইন্সটিটিউট পরিচালিত হয় তাদের কার্যক্রম হল ব্যাংকিং।
স্যারঃ জিব্রাল্টার প্রণালীর নাম শুনেছ
আমিঃ জি স্যার।
স্যারঃ বল এটা কি কি পৃথক করেছে।
আমিঃ স্যার এশিয়া থেকে আফ্রিকাকে ( ভুল বলেছি, হবে আফ্রিকা থেকে ইউরোপ কে)
স্যারঃ এশিয়া থেকে আফ্রিকা, তাহলে কোন কোন জায়গা দিয়ে গেছে।
আমিঃ(মুখস্থ ছিল) স্যার মরক্কো আর স্পেন কে আলাদা করেছে।
স্যারঃ তাহলে মরক্কো কোথায়
আমিঃ স্যার আফ্রিকা।
স্যারঃ তাহলে এশিয়া থেকে কিভাবে পৃথক হল।
আমিঃ সরি স্যার, পারবোনা।
স্যারঃ ব্যাংকে চাকুরি করতে ইচ্ছা, তাহলে এসব তো শিখে আসতে হবে তাইনা, ব্যাংকে যেহেতু চাকুরি করবা এসব জানতে হবে বুঝছ।
আমিঃ জি স্যার বুঝেছি।
তারপর আরো কিছু গ্রামের বাড়ি সংক্রান্ত ২,৩ টা প্রশ্ন করে বলল ঠিক আছে যাও তাহলে।
Recommended for Senior Officer of "Palli Sanchay Bank"

মশিউর রহমান মিলন >> ‎Banking Career in Bangladesh (BCB)>> অনেকেই লিখিত পরীক্ষায় কি কি টপিকের উপর প্রশ্ন হয়ে থাকে জানতে চেয়েছেন।সেজন্য লিখিত পরীক্ষার সিলেবাস নিয়ে আলোচনা করা যাক।বর্তমান সময়ে লিখিত পরীক্ষা মোট ২০০ নম্বরের(বিএসসি'র অধীনে নিয়োগ পরীক্ষায়) হয়ে থাকে।অন্যান্য বেসরকারি ব্যাংকে প্রিলিমিনারী পরীক্ষার সাথে ৩০/৪০/৫০ অথবা আরো কম/বেশি নাম্বারের লিখিত পরীক্ষা হয়ে থাকে।
বাংলা ফোকাস রাইটিং -২৫
ইংরেজি ফোকাস রাইটিং -২৫
বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ-১৫
ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ-১৫
বাংলা এপ্লিকেশন -১৫
ইংরেজি এপ্লিকেশন -১৫
ইংরেজি রিডিং কমপ্রিহেনশন -২০
গাণিতিক সমস্যা সমাধান-৭০
লিখিত পরিক্ষার মার্ক ডিস্ট্রিবিউশন সাধারণত এরকম হয়ে থাকে। তবে ফ্যাকাল্টি ভেদে একটু তারতম্য হতে পারে।
প্রথমেই বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ নিয়ে আসুন এনালাইসিস করি।বাংলা থেকে ইংরেজি অনুবাদ অংশে কোন একটা টপিক নিয়ে ৮/১০/১২টা বাংলা লাইন থাকবে যেটার ইংরেজি অনুবাদ করতে হবে।সব সময় চেষ্টা করবেন আক্ষরিক অনুবাদ না করে ভাবানুবাদ করতে।মূল বিষয় ঠিক রেখে ছোট ছোট বাক্যে সাবলীলভাবে ইংরেজিতে অনুবাদ করবেন।খুব কঠিন কঠিন ইংরেজি শব্দ ব্যবহার করে যে অনুবাদ করতে হবে তা কিন্তু নয়, আপনার পরিচিত ইংরেজি শব্দ ব্যবহার করেই সুন্দরভাবে গুছিয়ে অনুবাদ করুন।সেই সাথে ইকনমিক, রাজনৈতিক, সামাজিক, ব্যাংকিং এবং গ্লোবাল বিষয়গুলোর ইংরেজি টার্ম মুখস্থ রাখবেন।অনুবাদের সময় এই টার্মগুলোর ব্যবহার করবেন।সেই সাথে নিজের ভোকাবুলারিও নিয়মিত সমৃদ্ধ করবেন।অনেক সময় পরীক্ষার হলে পরিচিত বাংলার ইংরেজি শব্দ মনে আসবে না।পরীক্ষার হল থেকে বের হয়ে আফসোস করবেন।
সাইফুরস এর ট্রান্সলেশন এন্ড রাইটিং, মিয়া মোহাম্মাদ সেলিম ভাইয়ের অনুবাদবিদ্যা, মহিদ'স মাসিক সম্পাদকীয় সমাচার বইগুলো থেকে অনুবাদ অনুশীলন করতে পারেন।একটা কথা মনে রাখবেন অনুবাদ জিনিসটা ২/৪দিনে শেখার ব্যাপার নয়, হাতে সময় নিয়ে নিয়মিত অনুশীলনের জন্য নিজেকে প্রস্তুত করুন।বাজারে প্রচলিত প্রায় সবগুলো বই ই ভালো, আমরাই ভালোমতো শেখার চেষ্টা করি না।
ঠিক একই ভাবে ইংরেজি থেকে বাংলা অনুবাদ করবেন।বড় বড় ইংরেজি বাক্যকে ছোট ছোট অংশে ভেঙ্গে বাংলায় লিখবেন।কোন ইংরেজি শব্দ না বুঝলে সেই লাইনের আগের এবং পরের লাইন থেকে একটা প্রাসঙ্গিক বাংলা শব্দ ব্যবহার করবেন।উপরে উল্লিখিত বইগুলোতে কিভাবে বড় বড় ইংরেজি বাক্য ভেঙ্গে ভেঙ্গে অনুবাদ করতে হয় সেসবের বিস্তারিত ব্যাখ্যা দেওয়া আছে।আশা করি উপকৃত হবেন।
বাংলা এবং ইংরেজি এপ্লিকেশন এর জন্য বিগত ২/৩ বছরে বিভিন্ন সরকারী + বেসরকারি ব্যাংকের লিখিত পরীক্ষায় আসা ফরম্যাটগুলো খাতায় নোট করে রাখুন।সাথে রিসেন্ট যতগুলো ব্যাংকের লিখিত পরীক্ষা হয়েছে সেসব পরীক্ষায় আসা এপ্লিকেশনগুলোর ফরম্যাট সংগ্রহ করুন।ফরম্যাট ভালোমতো মাথায় গেঁথে রাখুন।এপ্লিকেশনে মূলত ফরম্যাট ঠিক আছে কিনা সেই বিষয়টা খেয়াল করা হয়।তবুও পরিক্ষার আগে পুরো এপ্লিকেশন ২/১ বার বাসায় লিখে লিখে প্রাকটিস করে যাবেন।
ইংরেজি রিডিং কমপ্রিহেনশনে কোন একটা বিষয়ের উপর অল্প কিছু আলোচনা থাকে।তারপর নিচে ৪/৫ টা প্রশ্ন থাকে সেই আলোচনা থেকে।আপনাকে সেই আলোচনা থেকে পড়ে প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে।তবে উত্তরে কখনোই কমপ্রিহেনশন থেকে হুবহু লাইন তুলে দিবেন না।সেই কথাগুলোই নিজের ভাষায় ২/৩ লাইনে উত্তর দেওয়ার চেষ্টা করবেন। Pearson Publications এর Objective English বইয়ে এবং ফজলুল হকের English for Competitive Exam বইয়ে রিডিং কমপ্রিহেনশন থেকে কিভাবে উত্তর করবেন বিস্তারিত আলোচনা করা আছে।এছাড়াও গাইড থেকে বিগত বছরের রিডিং কমপ্রিহেনশন সমাধান করলেই একটা ভালো ধারনা পাবেন।
আমার স্বল্প জ্ঞান আর অভিজ্ঞতার আলোকে যেভাবে প্রস্তুতি নিলে আশা করা যায় লিখিত পরীক্ষায় ভালো করবেন সেভাবেই শেয়ার করেছি।

Sumon Howlader > ‎Bangladesh Bank Exam Aid (BBEA)
এসএসসি ৩.৮৮(২০০৩)
এইচএসসি ৪.৩০(২০০৬)
অনার্স-মাস্টার্স ২য় বিভাগ(কেমিস্ট্রি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়)
একটা সাধারণ শিক্ষার্থীর একাডেমিক রেসাল্ট।
২০১৫ সালের জানুয়ারী মাস থেকে চাকুরির জন্য এক্সাম দেওয়া শুরু হয়।
ব্যর্থতার ইতিহাসঃ
janata aeo teller (viva fail )
Pubali officer (viva fail)
Meghna petroleum officer (viva fail)
Railway asm (viva fail)
Agrani SO (viva fail)
Housebuilding finance Corporation officer(viva fail)
Bdbl SO (viva fail)
agrani cash (viva fail)
Janata aeo RC (viva fail)
সফলতাঃ
Rupali cash (Selected)
Sonali officer (selected)
Sonali SO (selected)
ভাইভাতে অংশগ্রহণ করিনি (একই গ্রেডের জব হওয়ার কারনে)ঃ
Sonali cash
Combined officer general
পরবর্তী রেসাল্ট বাকিঃ
Cobined SO
Bcic (assistant chemist)
অনেকগুলো রিটেন ফেল করেছি জিবনে। প্রিলি তো আরো বেশী। বয়স শেষ হওয়ার পর রূপালী ব্যাংকে জয়েন করেছি জানুয়ারী তে।
এই পোষ্টটা আমি কয়টা জব পেয়েছি সেইটা দেখানোর জন্য না। এটা হলো তাদের জন্য যারা নিজের রেসাল্ট, ভার্সিটি আর বয়স নিয়ে শংকা প্রকাশ করেন তাদের জন্য।
মাস্টার্স এর রেসাল্ট যেদিন দিলো সেদিন জাফর ইকবাল ভাই ( এই গ্রুপের অ্যাডমিন) কে নক করে বললাম "ভাই এই রেসাল্ট দিয়ে কিছু হবে?" উনি বললেন "লেগে থাকেন ভাই। হবে।" ভাই এর কথা গুলো এখনো মনে আছে আমার।
নিজের উপর আস্থা রাখুন। কোটা, টাকা, সুপারিশ এগুলো বাদেও আপনি ভালো জবই পাবেন।
ধন্যবাদ।

প্রচুর টেক্সট পেয়েছি বিগত কয়েক দিনে। কিন্তু সত্যি বলতে আমি ইংরেজির চাইতে গণিতটাই ভাল পারি। তাই আমি চাই গনিত নিয়েই কিছু কথা বলতে। আমি আজকে চেষ্টা করব তাই গনিতটাকে একটা ফ্রেমে নিয়ে আসতে। আসলে ব্যাংকের প্রিলির প্রশ্ন বিভিন্ন ওয়েব সাইট থেকে হয়, তাই অনেকেই বিভিন্ন ওয়েবসাইট থেকে ম্যাথ করে প্রশ্ন কমন পাওয়ার একটা চিন্তা দেখা যায়। কিন্তু বিষয়টা একবার ভাবুন তো। ম্যাথ প্রশ্ন কমন পাওয়ার চিন্তা আর নিজের হাতে নিজের পায়ে কুড়াল মারা কিন্তু একই কথা। আমি নিজেও ম্যাথ কমন পড়বে এই চিন্ত কখনই করি না। সোনালী ব্যাংক সিনিয়র অফিসার, ৫ ব্যাংক অফিসার, ৮ ব্যাংক সিনিয়র অফিসার, প্রাইম ব্যাংক এমটিও সবগুলোতেই আমি দেখেছি, বিভিন্ন ওয়েব সাইট থেকে প্রশ্ন কমন আসছে। কিন্তু আমি প্রেফার করতাম কেবল একটি বই। আর তা হল আর এস আগারওয়াল। এত ম্যাথ আছে যে পরলেও শেষ হয় না। আর এর পর আর তেমন কিছু লাগেও না। ভালো করে পড়লে রিটেন ম্যাথের প্রস্তুতিও হয়ে যায়। এটার বাইরে আর তেমন কিছু লাগেও না। এই বইয়ে ম্যাথ আছে প্রায় ৬০০০+ কিন্তু সব ম্যাথ করার দরকার নেই। মোটামুটি ২৫০০+ ম্যাথ করলেই আপনার হয়ে যাবে। আমি একটি ফাইল যোগ করে দিয়েছি পোষ্ট এর সাথে, এই ফাইলটি বানিয়েছিলাম প্রস্তুতির সময়। এখানে কোন চ্যাপ্টারের কোন ম্যাথ করতে হবে, তা দেয়া আছে। আপনি কষ্ট করে এই সাজেশন অনুসারে ম্যাথ করুন। মজার ব্যাপার হল এই বই থেকে ম্যাথ করলে আপনার মোটামুটি বিসিএস এর ৫০ মার্কের রিটেন ম্যাথের ৪০ এর প্রস্তুতি হয়ে যাবে। তবে এই বইটি ইংরেজিতে দেয়া। তাই একটু সময় লাগতে পারে যারা কিনা ইংরেজিতে একটু দুর্বল। কিন্তু সময় নিয়ে করে ফেলতে পারলে আপনাকে কে আটকায়। আর এই বইটি আয়ত্ত্বে আনতে পারলে যদি সময় পান, তবে আপনি কেবল মাত্র gmatclub থেকে কিছু ৭০০ লেভেল এর ম্যাথ দেখতে পারেন অর্থাৎ খুব ম্যাথ দেখতে পারেন। এর বেশী কিছু লাগে না আমি মনে করি। ৭০০ লেভেলের ম্যাথের একটি বই ও পাবেন মার্কেটে। তবে ম্যাথ করার সময় নিচের বিষয় গুলো ভাল করে খেয়াল করবেন।
১। কোনভাবেই শর্টকাটের দিকে যাবেন না।
২। হাতে কলমে ম্যাথ করবেন।
৩। ক্যালকুলেটর ব্যবহার থেকে দূরে থাকবেন।
৪। সুদকষার ম্যাথ গুলোর ক্যালকুলেশন হাতে কলমে করা আয়ত্ব করে নিতে হবে।
৫। ত্রিকোণমিতির মানগুলো ভাল করে মুখস্ত করে নিন।
৬। যদি সূত্র প্রয়োগ করতেই চান, তবে সূত্রটি খুব ভালকরে বুঝে নিতে হবে।
৭। ম্যাথ দেখে যদি মনে হয় এটা তো পারিই। তবে সবার আগে এটিই করবেন। কারণ হল, দেখে মনে হওয়া যে আমি পারি, আর সমধান করে বলতে পারা যে আমি পারি, কথা দুইটি একেবারে ভিন্ন কথা। অনেক এক্সপার্ট হোঁচট খায় এই একটা কারণে।
কুহেলিকা সেন
Selected for the post of Management Trainee, Prime Bank Ltd.
Senior officer, Sonali Bank, written selected.
Officer, Combined 5 Bank, written selected.
Senior officer, 8 Bank, written selected.

ব্যাংক প্রিপারেশন..
কম সময়ে ও কম পরিশ্রমে সফল হবার চেষ্টা।
আমি যেমনটা করেছিলাম।
প্রিলির জন্য
১. আরিফুর রহমান Govt Bank Job
২. প্রিভিয়ার ইয়ারের সকল ভোকাবুলারি উইথ সিনোনিম ও এনটোনিম। পাশাপাশি সাইফুরস বইটা। কারণ ইংরেজি বেশির ভাগ ভোকাবুলারি বেসড প্রশ্ন হয়। ভোকাবুলারি আমি নোট করে বার বার পড়তাম। যেটা পড়বেন সেটা যেন মনে থাকে সেভাবে পড়তে হবে। বেশি পড়লাম মনে রাখতে পারলাম না। এমন যেন না হয়। ভোকাবুলারি ব্যাংকের জন্য মেইন।
৩. Competitive Exam বইটা গ্রামারের জন্য।
৪. ম্যাথ মেক্সিমাম টাইম বেশি করতাম না। প্রিলির ম্যাথ পারা যেত। তবে আগারওয়ালের বইটা করলে প্রিলি ও রিটেন কাভার হবার কথা।
৫. সাধারণ জ্ঞান এর জন্য Mp3 + পরীক্ষা যে মাসে সে মাস সহ আগের তিন মাসের কারেন্ট ওয়ার্ল্ড বা affairs.
৬. কম্পিউটার এর জন্য ইজি কম্পিউটার। এছাড়াও নেট বেসড কিছু ওয়েবসাইট আছে তা থেকে পড়তে পারেন।
অন্যদিন রিটেন নিয়ে লিখব যদি আপনারা মনে করেন আপনাদের উপকার হবে।
মোঃ সাইফুল ইসলাম
৩৭ ট্রেইনি ক্যাডেট সাব ইন্সপেক্টর
Recommended Sonali Bank Officer (General)

Mofakharul Islam Nayon > ‎Banking Career in Bangladesh (BCB)>>
৩০ বছর পূর্ণ হবার শেষ দিনটিতেই কাংখিত চাকরী প্রাপ্তি......
বাংলাদেশ ব্যাংক থেকে শুরু করে সকল রাষ্টায়ত্ব ব্যাংকে যত প্রিলি দিয়েছি, তার সবগুলুতেই পাস! কিন্তু লিখিত পরীক্ষায় সব জায়গায় ফেইল! ইভেন বিসিএস এ ও ২ বার লিখিত ফেইল! তারপর ও হাল না ছেড়ে এগিয়ে চলা ছিল আমার! বারবার লিখিত ফেইল আমাকে বিমর্ষ করে তুলতো! তা সত্ত্বেও পুনরায় নতুন করে শুরু করা ছিল আমার নেশা! মাস্টার্স রেজাল্ট প্রকাশের আগেই বাংলাদেশ রেশম উন্নয়ন বোর্ডে একটা জব হয়ে যায়! তারপর ও থেমে না থেকে এগিয়ে চলা ছিল অবিরাম! যার ফলস্বরুপ আমার বদলি খাগড়াছড়ি! তারপর ও থেমে যাই নি! খাগড়াছড়ি থেকে প্রতি শুক্রবার পরীক্ষা দিয়েছি! আর প্রিলি পাস লিখিত ফেইল! যথাযথভাবেই ইংলিশে দূর্বল! কিন্তু ম্যাথ করলেই পারতাম! সেটাকেই পূজি করে এগিয়ে চলতে থাকি! বাজারের এমন কোন ম্যাথ বই নেই যা সমাধান করতে চেষ্টা করিনি! কখনো পেড়েছি আবার কখনো পাড়িনি! তবে থেকে যাই নি! ম্যাথ ট কে সংগী করে এগিয়ে চলেছি! আর ইংলিশ মোটামোটি হয়েছে! তবে ভাল কোন কিছুই পারতাম না! আর এভাবেই নভেম্বর/2017 বয়স ৩০ ছুয়ে গেল! সে মাসেই কাংখিত ফলাফল শুনতে পারলাম! তখন ছিলাম খাগড়াছড়ি চেংগী নদীর ওপারে! অসাধারণ এক অনুভূতি ছিল সে মুহুর্তটা!

এ ঘটনা আমাকে যা শিখিয়েছে....
১. লেগে থাকতে হবে শেষ পর্যন্ত!!
২. নিজের প্রতি বিশ্বাস রাখতে হবে!
৩. একটা পরীক্ষা নিজের মত একদিন ঠিক ই হবে! সেদিনটার অপেক্ষায় থাকতে হবে!
৪. আমি সব পারবো না এটাই স্বাভাবিক! কিন্তু আমি যা পারি তা দিয়ে বাধা উতড়ানোর দিনটার জন্যে অপেক্ষা করতে হবে!
৫. আমি এম.এস ওয়ার্ড, এক্সেল খুব ই ভাল পারতাম, যা ব্যাবহারিকে আমাকে অনেক বেশি এগিয়ে দিয়েছে! ৫০ এ ৫০!!
৬. নিজের যা আছে তার প্রয়োগ সব জায়গায় হবে না, তবে কখন কোথায় হবে তার জন্যে ধৈর্যের সাথে অপেক্ষা অবশ্যই করতে হবে!
৬. রেজাল্ট, প্রতিষ্ঠান এ প্রভাব এর কথা না ভাবাই ভালো!
সবশেষে বলা যায় নিজের জন্যে একটা দিন অবশ্যই আসবে! আর সে দিনটা ই হবে নিজেকে প্রমাণ করার মোক্ষম সময়!
অফিসার (আইটি)
সোনালী ব্যাংক লিমিটেড
কুলাউড়া শাখা, মৌলভীবাজার, সিলেট!!

বোর্ড চেয়ারম্যান - লায়লা বিলকিস ম্যাম (ED) টোটাল বোর্ড মেম্বার - ৩ জন
সময়- ৮-১০ মিনিট
সাবিজেক্ট- ফিন্যান্স ও ব্যাংকিং
ম্যাম- নাম, উইনিভার্সিটি, সাবজেক্ট
আমি- ans
ম্যাম- ফিন্যান্স কি?
আমি- ans ম্যাম- কস্ট অফ ক্যাপিটাল কি?
আমি- ans ম্যাম- purchasing power parity কি? give Example
আমি- ans
বোর্ড- IRR VS NPV
আমি- ans বোর্ড- অর্থনীতিতে নোবেল কে কে পাইছে?
আমি- ans
বোর্ড- Balance of Payment?
আমি- ans
বোর্ড- টোটাল FDI কত এখন?
আমি- ans
বোর্ড- আগে কোনো রেজাল্ট পেন্ডিং আছি কিনা
আমি- ans
বোর্ড- কস্ট অফ ফান্ড কি?
আমি- ans
বোর্ড- Reatined Earning?
আমি- ans
ম্যাম- ওকে আসতে পার এখন।
আমি- সালাম দিয়ে বিদায় নিলাম
সবার জন্য শুভকামনা।

ভাই আপনি সোনালী ব্যাংকে ২ টা সরকারি চাকরি পেয়েছেন,কিভাবে পড়লে ব্যাংকে চাকরি পাবো?
- প্রথম কথা, আমি ব্যাংকের জন্য পড়িনি৷ আগেও বিসিএসের জন্য পড়তাম, এখনো বিসিএসের জন্যই পড়ি। আমার মতো অনেকেই বলে থাকেন, বিসিএসের প্রস্তুতি নিলে তার কোথাও না কোথাও সরকারি চাকরি হবেই আশা করা যায়।
- চাকরি পেতে হলে ম্যাথ আর ইংলিশে বস হতে হবে,এখানে কোন বিকল্প নাই।
- ম্যাথ না পারলে ক্লাস ১ /২ শ্রেনী থেকে শুরু করুন,নো অলটারনেটিভ!
-ইংলিশের জন্য ভোকাবুলারি পড়ুন প্রচুর,গ্রামার কম!
- কারো সাজেশন এর অপেক্ষায় না থেকে কিছু প্রিভিয়াস প্রশ্ন দেখুন, পড়ুন৷ফেসবুক চালান তবে আগে কোনটা গুরুত্বপূর্ণ বিবেচনা আপনার।

This POST Admin- অফিসার(ক্যাশ) ২০১৯ থেকে কর্মরত
অফিসার(জেনারেল) ২০২০ সালে সুপারিশ প্রাপ্ত
সোনালী ব্যাংক লিমিটেড।
এন্ড এট লাস্ট-
বৈধভাবে অনেক টাকার মালিক হতে চাইলে অন্যান্য সরকারি চাকরির চেয়ে সরকারি ব্যাংকের ব্যাংকার হওয়া বেটার!

যারা একদম নতুনভাবে শুরু করতে চাচ্ছেন তারা ৫ তারিখের পরীক্ষা স্থগিত হবার কারণে আরো একবার সুযোগ পাচ্ছেন নতুন ভাবে প্রস্তুত হতে। প্রথমেই একটা বিষয় ক্লিয়ার করে নেই। আপনি যদি ম্যাথে দুর্বল থাকেন সেক্ষেত্রে আপনার ব্যাংকে চাকরি পাওয়ার সম্ভাবনা ৫%। মানে যদি কখনো এমন ম্যাথ আসে যে কেউ পারে না, একমাত্র তখনই আপনি এগিয়ে থাকার সুযোগ পাবেন । ঠিক এই জিনিসটা এক বড় ভাই বুঝিয়ে দিলেন। তারপর আমি যা করলাম সেটা হলো অংকের সব বই টেবিল থেকে সরিয়ে ফেললাম। এরপর প্রথমে বাংলা এমপি৩ বই থেকে সাহিত্য অংশটুকু পড়লাম এবং বিগত বছরের যে প্রশ্নগুলো আমি পারিনা সেগুলা খাতায় লিখে আলাদা করলাম। ব্যাকরণ অংশের মুখস্থ অংশটুকু মানে এক কথায় প্রকাশ, বিপরীত শব্দ, বাগধারা, সমার্থক শব্দ,বানান ইত্যাদি বিগত বছরের গুলো নোট করলাম এবং ৯ম-১০ম শ্রেণীর বাংলা ২য় বইটা বুঝে বুঝে পড়ে শেষ করলাম। তারপর ইংরেজি এর জন্য ক্লিফস ও ব্যারন'স টোফেল থেকে গ্রামার অংশটুকু পড়লাম। তারপর কম্পিটিটিভ এক্সাম বইটা পড়া শুরু করলাম। আমি গ্রামার রুলস গুলো খাতায় লিখতাম এবং তার নিচে একটা উদাহরণ লিখতাম। প্রিপোজিশন গ্রপ ভার্বের জন্য কোন চাপ না নিয়ে শুধু বিগত বছরের কমন গুলো খাতায় তুললাম। কমন কিছু প্রোভার্বও লিখলাম। সাইফুর্স এনালজি বই থেকে সব মিলে ১৩০-১৪০ টার মত এনালজি আলাদা করে খাতায় লিখে ফেললাম। সাইফুর্স স্টুডেন্ট ভোকাবুলারি থেকে যেগুলো পারিনা সেগুলা খাতায় লিখে আলাদা করে ফেললাম। সাধারণ জ্ঞানের জন্য ইনসেপশনের বাংলাদেশ বিষয়াবলির একটা শিট আছে সেটা দুইবার রিডিং পড়লাম। আর ফেসবুক গ্রুপে নিয়মিত সাম্প্রতিক ও সাধারণ জ্ঞানের পোস্ট গুলো পড়ে শেষ করতাম। সাথে কারেন্ট এফেয়ার্স এর গুরুত্বপূর্ণ সাম্প্রতিক খাতায় নোট করতাম। সেই সাথে কারেন্ট এফেয়ার্সের শেষ দিকে পূর্ববর্তী মাসের পরীক্ষার সমাধান গুলো খুটিয়ে পড়তাম ও শেষ দিকের ব্যাংক, বিসিএস, নিবন্ধন এর বিষয় ভিত্তিক সাজেশন গুলোও পড়তাম।

কম্পিউটারের জন্য ইজি কম্পিউটার শেষ করলাম এবং বিগত বছরের যেগুলো পারিনা খাতায় লিখলাম। সাথে এক্সামভেডা থেকে জেনারেল কম্পিউটার পার্টটা পড়লাম এবং যেগুলো গুরুত্বপূর্ণ মনে হলো খাতায় লিখলাম। আপনি পরিশ্রমী হলে এই সবগুলো শেষ করতে ১৩-১৫ দিনের বেশি লাগবে না। এবার শুরু করলাম অংক। সাইফুর্স ম্যাথ বইটা খুটে খুটে সম্পুর্ণ শেষ করলাম। করার সময় যেগুলা প্রথম চেষ্টায় পারিনি সেগুলো দাগ দিয়ে রাখলাম। এবং অংকের সূত্রগুলো আলাদা করে খাতায় লিখে রাখলাম। এবার খাইরুলের রিসেন্ট ম্যাথ থেকে প্রিলি বিগত বছরের সবগুলো শেষ করলাম। এরপর ধরেছিলাম আগারওয়াল। এভাবে শুধু অংকই করে যেতাম। করতে করতে খুব বিরক্ত লাগলে তবেই অন্যান্য নোট গুলো চোখ বুলাতাম এবং ফেসবুক গ্রুপগুলোতে সময় দিতাম। আর ভোকাবুলারি নোটটা প্রতিদিন একবার চোখ বুলাতাম। পরীক্ষার একদিন আগে আমি কোন ম্যাথ করতাম না। আগের দিন বাংলা, ইংরেজি, কম্পিউটার, কারেন্ট এফেয়ার্স নোট পড়ে শেষ করতাম এবং সকালে ম্যাথের রুলস গুলো দেখে পরীক্ষা দিতে যেতাম।

আমি ফেসবুক গ্রুপগুলোর কাছে অনেক ঋণী। আমি অনেকের সাজেশন, টিপস্, নোট, মোটিভেশনাল কথা পড়তাম এবং ফলো করতাম। তাদের সবার প্রতি অনেক কৃতজ্ঞতা। একটা কথা মনে রাখবেন, সবাই মেসি হয়ে জন্মায় না, তবে রোনালদো হতে আপনার কোন বাঁধা নেই। নতুনদের জন্য শুভকামনা।

Courtesy:
AR Chanchal
সিনিয়র অফিসার
জনতা ব্যাংক লিমিটেড
আমি রংপুর পলিটেকনিক থেকে ২০১২ সালে সিভিল থেকে ৩.৭৯ সিজিপিএ নিয়ে পাশ করেছি। তার পর থেকে আজ অবধি পরিসংখ্যান...... 1) Railway- BPSC- Preli- Fail 2) PDB - Fail 3) Sonali Bank(2)- Fail 4) PGCB- (2) - Fail 5) BPSC 328 - Written Fail 6) BPSC Jr. Ins. - Preli- Fail 7) BPSC HED, SAE- Preli Fail 😎 BPSC HED Estimator- Viva Fail 9) BPSC 190 - Preli Fail 10) BWDB - Viva Fail 11) Rajuk - Viva Fail 12) LGD- Viva Fail 13) EGCB- Fail 14) TTC Ins. BPSC- Viva Fail 15) Nuclear Project- Fail 16) Metro Rail Project - Fail 17) PDB 2018 - Result Fail 18) DPHE Estimator - Preli Fail 19) DPH Drafts Man- Preli Fail 20) BPSC Building Overshere- Preli Fail 21) BWDB - Written Fail 22) PGCB- Written Fail 23) DM- Viva Pending 24) HED- Preli Fail 25) Sefty- Viva Pending 26) LGED- Recommended (Merit-82) বার বার ব্যার্থ হয়েছি, কষ্ট পেয়েছি, হৃদয় ভেংগে গেছে কিন্তু আশা ছাড়িনি! প্রত্যেকবার ব্যার্থ হয়ে নিজেকে নিজেই সান্তনা দিয়েছি এই ভেবে, আমি তো আমার সাধ্যমত চেষ্টা করেই যাচ্ছি। মধ্যবিত্ত পরিবারের সন্তান তাই পাশ করার পর থেকে প্রাইভেট জব করছি পাশাপাশি চেষ্টা করে যাচ্ছি। দেশের দুরতম প্রান্ত থেকে সাড়ারাত জার্নি করে এসে পরীক্ষায় অংশ নেই। একবুক কষ্ট পাই বার বার, আবার একবুক আশাও বাধি বার বার! এর মধ্যে ২০১৮ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হই। সংসার, পরিবার, প্রাইভেট জব সব কিছু মেইনটেইন করেই লেখাপড়াটাও চালিয়ে গেছি একদিন সফল হব ভেবেই। ব্যর্থ হয়েছি বার বার। অনেকেই তিরস্কার করা শুরু করে দিয়েছিল। আর তোর জব হবে না, টাকা ছাড়া সরকারি জব হয় না। ক্লান্ত হয়েছি কিন্তু থেমে যাইনি! তখনো বিশ্বাস করতাম আমি সফল হবই! আমাকে সফল হতেই হবে!!! অনেক বন্ধু বলত প্রাইভেট জব করে সরকারি জব হবে না। জব ছেড়ে দিয়ে প্রিপারেশন নে জব হবে। ভাবতাম জব ছেড়ে দিলে আমি কি খাব, বউকে কি খাওয়াবো আর বাবা মা কেই বা কি দিব?? তাই জব ছাড়ার সিদ্ধান্ত কখনোই নেই নাই। মনে আছে DM এর প্রীলি হয়েছিল বুধ বার আর LGED প্রিলি শুক্রবার মাঝে বৃহস্পতিবার। বস কে বলে শুধু বুধবারের ছুটি নিতে পেরেছিলাম বৃহস্পতিবারের ছুটি দেয় নাই। মংগল বার রাতে বগুড়া থেকে ঢাকা গিয়ে DM প্রীলি দেই আবার সেদিন রাতেই ঢাকা থেকে গোবিন্দগঞ্জ প্রায় ৩০০ কিমিঃ জার্নি করে এসে বৃহস্পতি বার সন্ধা পর্যন্ত অফিস করে আবার রাত ১১ টার গাড়িতে ঢাকা যাই এবং পরের দিন শুক্রবার LGED প্রিলি পরীক্ষা দেই। আলহামদুলিল্লাহ ডিএম ও LGED দুটোতেই প্রিলি পাশ করি এবং তার পর থেকে চাকুরির পাশাপাশি রিটেনের জন্য জোড়ালো ভাবে প্রিপারেশন নিতে থাকি। যেখানেই গিয়েছি মোবাইলে পড়েছি এবং ছোট করে হ্যান্ড নোট বানিয়ে সাথে নিয়ে গেছি। এভাবেই চলতে থাকে প্রচেষ্টা। অবশেষে সফলতার সূর্যটা হাতে পেলাম। (LGED-Merit-82) তবে জবটা এখনো ছাড়ি নাই। ভাবছি এপোয়েনমেন্ট হাতে পেয়েই রিজাইন দিব। এই পোষ্টটি করলাম যারা হতাশায় ভুগছেন, মনে করছেন আমাকে দিয়ে কিচ্ছু হবে না, প্রাইভেট জব করে সরকারি চাকরি হয় না তাদেরকে ইন্সপায়ার করার জন্য। লেগে থাকুন সফলতা আসবেই ইনশাল্লাহ!!! (নাইম ভাই গ্রুপ থেকে সংগৃহিত)

০১. হেপাটাইটিস রোগের প্রধান কারণ?




০২. কোনটি জলবায়ুর নিয়ামক?




০৩. কোন গ্রহটি ঘন মেঘে ঢাকা?




০৪. কোন উপগ্রহ নেই কোন গ্রহের?




০৫.জীবদেহের গঠন ও কাজের একক কি?




০৬.সমুদ্র স্রোতের কারন কী?




০৭. সমুদ্রের জল ফুলে ওঠে মূলত কিসের কারনে?




০৮. নীলাভ সবুজ শৈবাল কারা?




০৯. পরিবহন টিস্যু বিদ্যমান কোনটায়?




১০. অরীয় প্রতিসম কোনটি?




১১. সংরক্ষিত ডেটাবেজকে বলে?




১২. ক্লায়েন্ট প্রক্রিয়াকরনে সহায়তা করে?




১৩. টিস্যু প্রধানত কত প্রকার?




১৪. গম কী জাতীয় উদ্ভিদ?




১৫. ডেটাবেজের পরিবর্তন করতে পারে না-




১৬. কেবল সংযোগ ছাড়া ডেটা ট্রান্সফার পদ্ধতি হল-




১৭. ক্লাউড কম্পিউটিং এর বৈশিষ্ট্য কয়টি?




১৮. সমুদ্রপৃষ্ঠের উচ্চতা ১ মিটার বাড়লে বাংলাদেশের সুন্দরবনের কত শতাংশ বিলীন হয়ে যাবে ?




১৯. জলবায়ু পরিবর্তনের কারণে বাংলাদেশের উপকূলের লবণাক্ততায় আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা কত ?




২০. নিয়ত বায়ু কত প্রকার?




২১. মওসুম কোন ভাষার শব্দ?




২২. সমুদ্রে জলরাশির পরিমাণ




২৩. এইডস কী?




২৪. এইডস রোগের জন্য দায়ী?




২৫. কোনটা ভাইরাস ঘটিত রোগ নয়?




২৬. জলবসন্ত এর জীবাণু?




২৭. কোভিড-১৯ এর জীবাণু?




২৮. দুধকে টক করে?




২৯. বৃহস্পতির উপগ্রহ কতটি?




৩০. বলয়যুক্ত গ্রহ কোনটি?




৩১. সূর্য পৃথিবীর চেয়ে কত লক্ষ গুণ বড়?




৩২. পৃথিবীকে একবার ভ্রমণ করতে চাঁদের সময় লাগে কত দিন?




৩৩. সূর্যের নিকটতম নক্ষত্র কোনটি?




৩৪. কোন কোষে নিউক্লিয়াস সুগঠিত?




৩৫. দেহকোষে কোষ বিভাজন হয় কোন প্রক্রিয়ায়?




৩৬. মানবদেহের ক্রোমোজমের সংখ্যা কতটি?




৩৭. মানবদেহের পাওয়ার হাউজ কোনটি?




৩৯.আধুনিক জীবপ্রযুক্তি কি কি বিষয়ের সমন্বয়ে গঠিত?




৪০. বায়োটেকনোলজি শব্দটি কে প্রথম ব্যবহার করেন?




Download Instructions
How To Download ? Just Click on the download button. Please Help Others By Sharing each files. Share To other students. Don't Forget to Comment on our site because Our all post uploaded according to your valuable comment. Help: If You are faching any problem to Download This file please comment below on Blogger Comment Box. We also Provide Media Fire Link. Please Go Forword To Download.
Download Policy: Every download of this site include 30 seconds timer Download Button option. So, your ordinary file will ready to downlod within 30 seconds after complete coundown Download Button will visible to you . Just Click on Download Now! Button and you will get the file.
কিভাবে নিজের লক্ষ্যে পোঁছাব ?

- মনে রাখবেন আপনার পথ আপনার নিজেকেই তৈরি করে নিতে হবে । অন্যের বানানো পথে আপনি বেশি দূর যেতে পারবেন না ।

সবসময় নিজেকে ব্যাস্ত রাখার চেষ্টা করুন কাজ করতে থাকুন মনে রাখবেন সফলতা আসবেই ।

তবে মনে রাখবেন গ্রাজুয়েশন বা পোস্ট গ্রাজুয়েশন এদের আর্দশ আশ্রয়স্থল হলো বিসিএস বা ব্যাংক আর আপনি এই দুটো স্থান ছারা আপনার গ্রাজুয়েশনের পারিশ্রমিক পাবেন না ।

আর পেলেও অনেক সময় লাগবে , কাজটা ধরে রাখতে হবে ।

তবে আপনার মনে করাটাই স্বাভাবিক আমি তো সবে এসএসসি বা এইচএসসি পরীক্ষার্থী এগুলো জেনে আমার কী লাভ , হা লাভ অবশ্যই আছে । যদি ভবিষ্যতে ডাক্তার বা ভালো ইঞ্জনিয়ার হিসেবে নিজেকে প্রতিষ্ঠিত করতে পারেন, এই ধরনের আত্মবিশ্বাস থাকলে এগুলো আপনার জন্য নয় । তবে যারা সাধারণ লাইনে পড়াশোনা শেষ করতে চান তারা অবশ্যই একটু সময় নিয়ে পড়ুন ।