HSC EXAM Suggestion
অর্থায়ন ১ম পত্র
যারা একটু কম পারেন তাদের জন্য এবং যারা ভালো পারেন তারা এগুলো করতে পারলে আরো ভালো হবে । প্রথমে বলে রাখি অংক জাতীয় সকল বিষয় অবিকল কমন আসে না তাই এই বিষয়টি করবেন একটু কৌশলের সাথে । আপনার সব অধ্যায় করা লাগবে এমন নয় যে অধ্যায়টি করবেন ভালো করে বুঝে করবেন । যাতে যেকোনো ভাবে দিলেই আপনি পারবেন । আমার ছাত্রদের আমি যেভাবে করিয়েছি সেগুলো আপনার সুবিধার্থে দেখে নিন। একটা কথা বলে রাখি Finance এর অংক বেশ কিছু ভাবে করা যেতে পারে তাই কখনো নিয়ম বদলাতে যাবেন না আপনার স্যার যেভাবে করিয়েছে ঐভাবে নিয়মিত চর্চা করুন এবং আপনি সারা বছর যেভাবে যে নিয়মে করেছেন ঠিক exam এর সময় ঐভাবেই করবেন । জেনে রাখা ভালো অর্থায়ন পরিক্ষার সময় অংক করতে গিয়ে কি কি সমস্যা হয় -
১. অংকের ছক বা নিয়ম ভুলে যাওয়া ( আপনার বোঝর অভাব)
২. সুত্র মনে না পরা ( চর্চার অভাব)
অর্থায়ন পরিক্ষায় এই কাজটি কখনোই করবেন না -
অংকটি একবার পড়েই করতে শুরু করে দিবেন না । ভালো করে পরবেন ।-
মনে রাখবেন অর্থায়ন বিষয়ের অংক করতে সময় কম লাগে ।
আপনি পারলে দেখবেন একটি অংক কত দ্রুত হয় আর না পারলে সারাদিনেও হবে না ।
তাই প্রথমে ভালো করে পড়ে নিন এবং ঐ অংকে কি কি আছে ভালো করে দেখে নিন ।
এবং নিশ্চিত হয়ে নিবেন আপনার সূত্রে ঠিক ঐ একই উপাদান আছে ।

অর্থায়ন বিষয়ে কিভাবে ভালো ফলেফল করবো ?এবং ৮০% মার্ক পাবো ?
এগুলো তাদের জন্য সম্ভব যারা সারা বছর ধরে অংক চর্চা করেছেন । যারা চর্চা করেননি৭ তাদের জন্য একটু কষ্টকর কিন্তু অসম্ভব না । তারাও একটু চেষ্টা করলে হতেই পারে ।
প্রাথমিক সাজেশন : বিগত বছরের বোর্ডের অংক করবেন ২০১৫, ২০১৬ এবং ২০১৭ তে কিভাবে এসেছিলো দেখবেন । কমন পাবার আশাই থাকবেন না নিয়োম শিখুন ।
টেস্ট পেপার : যাদের আছে তারা ঢাকার সকল কলেজ গুলো করবেন । এছারাও সৃজনশীল প্রশ্ন : (ক, খ) তে লিখিত প্রশ্ন থাকতে পারে তাই ঐগুলো ভালো করে পরবেন।
টিক : বোর্ডে র ও টেস্ট পেপার এর টিকের সমাধান নিজে নিজে করুন ( পারবেন )
যারা একদম দুর্বল বা একটু কম পারেন তারা এখানে দেখুন
continue reading... যারা অর্থায়ন ১ম পত্র কিছুই ভালো মতো বোঝেন না তাদের জন্য -
১. প্রথমে দেখবেন শুধু সৃজনশীল প্রস্ন আছে কিনা।

অধ্যায় – ৫
মূলধনী আয় ব্যয় প্রক্কলন

# সূত্র সমূহ –
১। নীট মুনাফা নির্ণয় –
নীট মুনাফা = করপূর্ব মুনাফা – প্রদত্ত কর
এখানে,
করপূর্ব মুনাফা = বিক্রয় – স্থায়ী / চলতি খরচ – অবচয়
২। গড় নীট মুনাফা /ক্ষতি নির্ণয় –
গড় নীট মুনাফা /ক্ষতি =

৩। গড় মুনাফার হার নির্ণয় –
গড় মুনাফার হার =
এখানে,
গড় বিনিয়োগ =
৪। পে – ব্যাক – সময় নির্ণয় –
পে – ব্যাক – সময় =

৫। সরলরৈখিক পদ্ধতিতে অবচয় নির্ণয় –
অবচয় =
অথবা,
অবচয় = অবচিত মূল্য ÷ আয়ুষ্কাল
এখনে, অবচিত মূল্য =

উধাহরনঃ ১। জাহিদের একটি প্রকল্পে -
প্রাথমিক খরচ ৫০,০০০ টাকা
অবশিষ্ট মূল্য বা খরচ ১০,০০০ টাকা
প্রকল্প থেকে পাওয়া যাবে -
১০,০০০ টাকা , ১২,০০০ টাকা , ১৪,০০০ টাকা , ১৬,০০০ টাকা , ২০,০০০ টাকা
করের হার/ভ্যাট / tax / vat / সরকারকে প্রদত্ত ৫০ %
অবচয় সরল রৈখিক পদ্ধতি অনুসারে ।

করনীয়ঃ
ক। মোট অবচয়ের পরিমান কত ?
খ। জাহিদের নীট মুনাফা কত ?
গ। গড় নীট মুনাফা নির্ণয় কর ।
ঘ। গড় বিনিয়োগ নির্ণয় কর ।
ঙ। প্রকল্পে গড় মুনাফার হার কত ?
চ। প্রকল্পটির পে-ব্যাক – সময় কত ?
ক। সমাধানঃ অবচয় = ৮, ০০০ টাকা (উঃ)

খঃ সমাধানঃ
বিবরন বছর - ১ বছর - ২ বছর - ৩ বছর - ৪ বছর - ৫
বিক্রয়
(-) অবচয়
১০,০০০
৮, ০০০
১২, ০০০
৮, ০০০
১৪,০০০
৮, ০০০
১৬,০০০
৮, ০০০
২০,০০০
৮, ০০০
মোট মুনাফা/ করপুর্ব মুনাফা- ২,০০০ ৪,০০০ ৬,০০০ ৮,০০০ ১২,০০০
(-) কর (৫০ %) ১০০০ ২০০০ ৩০০০ ৪০০০ ৬০০০
নীট মুনাফা - ১,০০০ ২,০০০ ৩,০০০ ৪,০০০ ৬,০০০
 
গ।সমাধানঃ 
আমরা জানি , 
গড় নীট মুনাফা = 
 = 
=৩,২০০ (উঃ)
 
ঘ। সমাধানঃ 
আমরা জানি ,
গড় বিনিয়োগ = 
=
= ৩০,০০০ (উঃ)
 
ঙ। সমাধানঃ আমরা জানি ,
গড় মুনাফার হার = x ১০০
 = x ১০০
 = ১০.৬৭ % (উঃ)
চ। সমাধানঃ 
প্রকল্পটির পে-ব্যাক সময় নির্ণয়:
বছর নগদ প্রবাহ ক্রমযোজিত নগদ প্রবাহ
১০,০০০ ১০,০০০
১২,০০০ ২২,০০০
১৪,০০০ ৩৬,০০০
১৬,০০০ ৫২,০০০
২০,০০০ ৭২,০০০

আমরা জানি , 
পে – ব্যাক  সময় 
=
৩.৮৮ বছর (উঃ)
 

িজে করঃ 

উধাহরনঃ ৩। মেঘনা প্রকল্পে - প্রাথমিক খরচ ৫০,০০০ টাকা । অবশিষ্ট মূল্য বা খরচ ১০,০০০ টাকা । প্রকল্প থেকে পাওয়া যাবে -

বছর নগদ প্রবাহ ক্রমযোজিত নগদ প্রবাহ
১০,০০০ ১০,০০০
১৫,০০০ ২৫,০০০
২০,০০০ ৪৫,০০০
১০,০০০ ৫৫,০০০
২০,০০০ ৭৫,০০০
৩০,০০০ ১,০৫,০০০
চলতি খরচ বিক্রয়ের ৩৫ % এবং কর ৩০% 
ক। নীট মুনাফা কাকে বলে ? 
খ। মেঘনা প্রকল্পের নীট মুনাফা কত ? 
গ। গড় নীট মুনাফা নির্ণয় কর । 
ঘ। গড় বিনিয়োগ নির্ণয় কর । 
ঙ। প্রকল্পে গড় মুনাফার হার কত ? 
চ। প্রকল্পটির পে-ব্যাক – সময় কত ?
উধাহরনঃ ৪। যমুনা প্রকল্পের প্ররম্ভিক মূলধন ১২০ লক্ষ এবং অবশিষ্ট মূল্য বা খরচ ৪০ লক্ষ । এরা সরল রৈখিক পদ্ধতিতে অবচয় ধার্য করে থাকে । এবং কর বাবদ ৩০% প্রদান করে এটি ৩ বছরের প্রকল্প তাই বিক্রয়ের ওপর ৪০% হিসেবে এদের চলতি খরচ হয় । চলতি বছরে স্থায়ী খরচের পরিমান ছিল ৬ লক্ষ টাকা । এছারাও প্রকল্পটির নগদ প্রবাহ ছিল প্রায় ৪০ লক্ষ , ১৮০ লক্ষ , ১১০ লক্ষ টাকা ।
করনিয়ঃ
ক। প্রকল্পটির মোট বিনিয়োগ / মূলধন কত ? উঃ
খ। মোট অবচয়ের পরিমান কত ? উঃ
গ। প্রকল্পটির গড় বিনিয়োগ নির্ণয় কর । উঃ
ঘ। যমুনা প্রকল্পের –
১। মোট মুনাফা/ করপুর্ব মুনাফা কত ? উঃ
২। নীট মুনাফা কত ? উঃ
ঙ। প্রকল্পটর সর্বমোট নীট মুনাফা / ক্ষতি কত ? উঃ
চ। গড় নীট মুনাফা/ক্ষতি নির্ণয় কর । উঃ
ছ। গড় বিনিয়োগ নির্ণয় কর । উঃ
জ।প্রকল্পে গড় মুনাফার হার কত ? উঃ
ঝ। প্রকল্পটিতে বিনিয়োগ ২০০ লক্ষ টাকা হলে প্রকল্পটির পে-ব্যাক – সময় কত ? উঃ
Important massege for you : that given answer may be wrong .
বিঃদ্র – দেওয়া উত্তর গুলোতে ভুল থাকতে পারে । থাকলে সংশোধন কর ।

উধাহরনঃ ৫। তিতাস প্রকল্পের নগদ প্রবাহ প্ররম্ভিক ১২ লক্ষ টাকা ।
বছর - নগদ প্রবাহ
১ - ৪ লক্ষ টাকা
২ - ১১ লক্ষ টাকা
৩ - ১০ লক্ষ টাকা
৪ - ১৫ লক্ষ টাকা
৫ - ৮লক্ষ টাকা
৬ - ৫ লক্ষ টাকা
করনিয়ঃ
ক। প্রকল্পটির পে-ব্যাক – সময় কত ?

 উধাহরনঃ ৬। x-Ltd company :

করনিয়ঃ  
ক। প্রকল্পটর সর্বমোট নীট মুনাফা / ক্ষতি কত ?         
খ। গড় নীট মুনাফা/ক্ষতি নির্ণয় কর ।
গ। গড় বিনিয়োগ নির্ণয় কর ।
ঘ। প্রকল্পে গড় মুনাফার হার কত ?
Hint : (****) থাকলে ক্ষতি । 
বিবরন
বছর - ১ বছর - ২ বছর - ৩ বছর - ৪ বছর - ৫
বিক্রয় ১২,০০০ ১৪, ০০০ ১৬,০০০ ১৮,০০০ ২৫,০০০
মোট মুনাফা - ৪,০০০ (৮,০০০) ১২,০০০ ১৬,০০০ ১৫, ০০০
নীট মুনাফা -(২,০০০)৪,০০০৬,০০০(৮,০০০) ৭,৫০০
 
উধাহরনঃ ৭। RFL গ্রুপ নতুন একটি প্রকল্পে বিনিয়োগ করতে চান । এই প্রকল্পটির জন্য নগদ ১,২৩,০০০ টাকা বিনিয়োগের প্রয়োজন । প্রকল্পটির আয়ুষ্কাল ৫ বছর এবং কোন ভগ্নাবশেষ মূল্য নেই । প্রকল্পটি থেকে নিম্নলিখিত করপুর্ব মুনাফা হবে বলে আশা করা যায় ।
বছর   করপুর্ব মুনাফা
১ -------  ৪০,০০০
২ ------- ৩৫,০০০
৩ ------- ৩০,০০০
৪ ------- ৪৫,০০০
৫ ------- ৪২,০০০
Vat/tax/ করের হার ৩০% । প্রকল্পটির গড় মুনাফার হার নির্ণয় কর ।

অধ্যায় – ৬ - মূলধন ব্যয়
করনীয়ঃ
১। সাধারণ শেয়ারের ব্যয়  (ke)  নির্ণয় ।
২। ঋণপত্রের ব্যয় (kd) নির্ণয় ।
৩। অগ্রাধিকার শেয়ারের ব্যয় (kp) নির্ণয় ।
৪। মূলধন অনুপাত নির্ণয় ।
৫। গড় মূলধন ব্যয় নির্ণয় ।
অন্যান্য
৬। মোট মুনাফা ।
৭। গড় মুনাফা ।
৮। মোট বিনিয়োগ ।
৯। গড় বিনিয়োগ ।
১০। গড় মুনাফার হার ।

এখানে ,
D০ = বর্তমান লভ্যাংশ
D1 = প্রতাশিত / ভবিষ্যৎ লভ্যাংশ
    = D০( 1 + g )
G = লভ্যাংশ বৃদ্ধির হার
Ke = সাধারণ শেয়ারের ব্যয় = ?

এখানে ,
Kb = করপুর্ব ব্যয়
Tr = করের হার
Kd = পরবর্তী ঋণপত্রের ব্যয় = ?
প্রয়োজনীয় সূত্র সমূহ
১। সাধারণ শেয়ারের ব্যয়  (ke)  নির্ণয় –
বৃদ্ধি / হ্রাস না থাকলে –     
               Ke =  x 100

বৃদ্ধি থাকলে –
              Ke =  + g ) x 100
 
হ্রাস থাকলে –
              Ke =   -  g ) x 100

২। ঋণপত্রের ব্যয় (kd) নির্ণয় –
অঙ্কে একটি ব্যয় দেওয়া
 থাকে ওটি করপুর্ব ব্যয় =kb

নির্ণয় করতে হবে কর পরবর্তী ব্যয় –
Kd = kb ( 1 – Tr )

৩। অগ্রাধিকার শেয়ারের ব্যয় নির্ণয় –
Kp = x 100       

এখানে ,
Kp = অগ্রাধিকার শেয়ারের ব্যয়
শেয়ার প্রতি লভ্যাংশ = অগ্রাধিকার শেয়ারের সাথে দেওয়া
       থাকে সেটি লভ্যাংশের টাকা হিসেবে ধরতে হবে ।
শেয়ারের বাজার মূল্য = অঙ্কে দেওয়া থাকবে ।
৪। মোট মূলধন / বিনিয়োগ নির্ণয় –
   মোট মূলধন = উৎস গুলোর সমষ্টি

৫। মূলধন / উৎসের অনুপাত নির্ণয় –
   মূলধন অনুপাত =

৬। গড় মূলধন ব্যয় নির্ণয় –
    গড় মূলধন ব্যয় = মূলধন অনুপাত x  মূলধন ব্যয়

৭। মোট মুনাফা / করপুর্ব মুনাফা নির্ণয় –
    মোট মুনাফা = বিক্রয় – চলতি খরচ – স্থায়ী খরচ – অবচয় ( উল্লেখ থাকলে )


৮। নীট মুনাফা / কর পরবর্তী মুনাফা নির্ণয় –
    নীট মুনাফা = মোট মুনাফা – করের পরিমান

এখানে ,
D০ = বর্তমান লভ্যাংশ
D1 = প্রতাশিত / ভবিষ্যৎ লভ্যাংশ
    = D০( 1 + g )
G = লভ্যাংশ বৃদ্ধির হার
Ke = সাধারণ শেয়ারের ব্যয় = ?

এখানে ,
Kb = করপুর্ব ব্যয়
Tr = করের হার
Kd = পরবর্তী ঋণপত্রের ব্যয় = ?

Close

Post a Comment

Use Comment Box ! Write your thinking about this post and share with audience.

Previous Post Next Post

Sponsord

Sponsord